জনকল্যাণে কাজ করে যাব -ইতি

প্রকাশিত: ০২-১১-২০২১, সময়: ১৪:১৫ |
Share This

আবু বক্কর সিদ্দিক, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ’সকলের তরে সকলে আমরা- প্রত্যেকে আমরা পরের তরে’-এ প্রথা মেনে জীবনের শেষ মূহুর্ত পর্যন্ত জনকল্যাণে কাজ করে যাবার প্রত্যয় ব্যক্ত করে সমাজসেবামূলক নানাবিধ সামাজিক কর্মকান্ডে বিশেষ ভূমিকা রাখে পথ চলা নারী-নেতৃত্বের পরিচিত মুখ আক্তার বানু (ইতি) বলেছেন, এবারে ছোট্ট পরিসরে হলেও জনসেবার জন্য ইউপি নির্বাচনে নিজস্ব সংরক্ষিতাসনে নির্বাচনী প্রতিদ্বদ্বিতা করব।গতকাল উপজেলা কৃষি অফিসার ও সংশ্লিষ্ট ইউপি নির্বাচন পরিচালনার জন্য নিয়োজিত রিটার্নিং অফিসার রাশেদুল কবির’র নিকট মনোনয়ন পত্র দাখিল করার পর আমাদের এ প্রতিবেদকের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। ইতি বলেন, একাধিক সংগঠনের সঙ্গে জড়িত থেকে সাংগঠনিকভাবে মানুষের পাশে আছি। আসন্ন ইউপি নির্বাচনে স্থানীয় পর্যায়ে হলেও জনসেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে চাই। এজন্য সম্মিলিত সকলের সহযোগিতা কামনা করছি। উন্নয়ন ও জয়লাভে পারস্পরিক সহযোগিতার কোন বিকল্প নেই। এবারে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত ২নং ওয়ার্ড (৪, ৫ ও ৬নং সাধারণ ওয়ার্ড) সদস্য পদ-প্রার্থী হিসেবে সকলের দোয়া ও সমর্থন প্রার্থনা করছি। নির্বাচিত হয়ে সকল দ্বিধা-বিভক্তি ভুলে নির্বাচনী এলাকা তথা অত্র সংরক্ষিতাসনের জনসেবায় নিয়োজিত থাকব, উন্নয়নের ক্ষেত্রে অবিরাম প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব, সকলের সার্বিক সহযোগিতা ও উপদেশ মেনে চলব- ইনশাল্লাহ্! আক্তার বানু (ইতি) আরো বলেন, বিগত দিনে ভাল মানুষভেবে অনেককেই সমর্থন দিয়েছি, অন্যকেও উদ্বুদ্ধ করেছি। নির্বাচিত হয়ে কেউ কেউ আর খোঁজ নেয়নি ভালবাসার মানুষদের। কেউ কেউ আবার কুক্ষিগতও করেছেন। সে-ই সব ভাল মানুষের মত না হয়ে সজ্জন হিসেবে ভবিষ্যতে মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নেয়ার আন্তরিক প্রচেষ্টাই হবে আমার আগামীর সু-দৃঢ় পথ চলা। সকলের প্রতি অঘাত আত্মবিশ্বাস রেখে সকলের আন্তরিক ভালবাসাকেই পুঁজি করে নিজের বিজয় পত্যাশা করেন এ নারীনেত্রী। অপর এক প্রশ্নের জবাবে, আক্তার বানু বলেন, রাজনৈতিকভাবে যতবার যতরকমের প্রস্তাব এসেছে। সবই প্রত্যাখান করেছি। কারণ, নিজের ব্যক্তিত্ব হারাতে চাইনা। সততা, নিষ্ঠা, প্রতিবাদীতা, সহসীকতা, আত্মবিশ্বাস, মানুষের দোয়া- ভালবাসা আর মহান সৃষ্টিকর্তার দয়ায় আসন্ন নির্বাচনে যদি আমার পক্ষে রায় হয়। আমি সে রায়কে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ রাখব- ইনশাল্লাহ্।     

উপরে