ক্ষেতলালে ধর্ষণের শিকার এক গৃহবধূ

প্রকাশিত: ৩০-১০-২০২১, সময়: ১৩:১৬ |
Share This

জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে অসুস্থ এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী বাবলু (৬০) উর্ধে এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। উপজেলার কলিঙ্গা গ্রামে (২৩ অক্টোবর) দুপুর ১২টায় তার নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। গ্রেফতার বাবলু উপজেলার বড়াইল কলিঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা। ক্ষেতলাল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহ আলম সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানা যায়, ওই গৃহবধু নারী স্বামী ও দুই সন্তান নিয়ে বসবাস করছিলেন। স্বামী পেশায় একজন দিনমজুর। তার স্বামীর সঙ্গে প্রতিবেশী আব্দুস সামাদের ছেলে বাবলু মণ্ডলের বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠে। স্বামী কাজের সন্ধানে বাড়ির বাইরে গেলে ওই গৃহবধু নারীকে ঘড়ে একা পেয়ে স্বামীর বন্ধু পৃর্ব পরিচিত বাবলু মণ্ডল তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।ওই নারী ঘটনাটি তার স্বামীকে না জানিয়ে বাপের বাড়ি গিয়ে তার ভাইকে জানান। তার ভাই এ বিষয়টি স্থানীয় ইউপি মেম্বার জামাল হোসেনকে জানান। পরে মেম্বার ওই নারীকে নিয়ে ওই দুইজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে ক্ষেতলাল থানা পুলিশ তার স্বামী ও বাবলু মণ্ডলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। প্রাথমিক তদন্তে তার স্বামীর সম্পৃক্ততা না থাকায় তাকে ছেড়ে দিয়ে বাবলু মণ্ডলকে ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার করেন।ক্ষেতলাল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহ আলম বলেন, এ ঘটনায় ওই গৃহবধু বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) বিকেলে থানায় মামলা করেন। মামলার পরে নিজ এলাকা থেকে বাবলুকে গ্রেফতার করা হয়।ধর্ষণের শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বা মৃত্যুদণ্ড। তবে এটা অনেকেই জানেন না। শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উপরে