আত্মসমর্পণের পর ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপাল বণিক কারাগারে

প্রকাশিত: ১৯-০৯-২০২১, সময়: ০৭:৪২ |
Share This

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজধানীর নর্থ রোডের (ভূতেরগলি) ফ্ল্যাট থেকে ৮০ লাখ টাকা উদ্ধারের দুর্নীতির মামলায় সিলেটের সাময়িক বরখাস্ত কারা উপমহাপরিদর্শক পার্থ গোপাল বণিকের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।রোববার ঢাকার চার নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে তিনি আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। বিচারক জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।এর আগে ২ সেপ্টেম্বর এ মামলায় পার্থ গোপাল বণিককে বিচারিক আদালতের দেওয়া জামিন বাতিল করে রায় দেন হাইকোর্ট।সেই সঙ্গে তাকে ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয় রায়ে।এ ছাড়া ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ থেকে মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ পাঠিয়ে আগামী বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে মামলাটি নিষ্পত্তি করতে বলা হয়।গত ১৭ জুন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত ৫-এর বিচারক ইকবাল হোসেনের ভার্চুয়াল আদালত পার্থ গোপাল বণিককে জামিন দিয়েছিলেন। এর পর পার্থ গোপাল কারামুক্ত হন।পরে ওই জামিনের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করে দুদক। গত ২৮ জুন সেই আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেন হাইকোর্ট।সেই সঙ্গে বিচারিক আদালতে জামিনের পর বেসরকারি একটি টেলিভিশনে প্রচারিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনের অনুলিপিসহ সিডি হাইকোর্টে দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়।পাশাপাশি এক বছর ও ছয় মাসের মধ্যে পার্থ গোপাল বণিকের মামলা নিষ্পত্তি করতে হাইকোর্টের দুটি আদেশের বিষয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে ব্যাখ্যা দিতে বিশেষ জজ আদালতকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।আদেশ অনুযায়ী ওই টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ তাদের প্রতিবেদনের অনুলিপিসহ সিডি জমা দেয়। পাশাপাশি বিশেষ জজ আদালতও ব্যাখ্যা দেয়।ব্যাখ্যায় ঢাকার বিশেষ জজ আদালত ৫-এর বিচারক ইকবাল হোসেন ক্ষমা চান। এর পর শুনানি শেষে গত ২৬ আগস্ট রায়ের জন্য রাখেন হাইকোর্ট।  ২০২০ সালের ২৪ আগস্ট মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক মো. সালাহউদ্দিন ডিআইজি প্রিজনস পার্থের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।   গত বছরের ৪ নভেম্বর তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। এর পর ১৫ ডিসেম্বর এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।২০১৯ সালের ২৮ জুলাই বিকালে রাজধানীর ধানমন্ডির ভূতেরগলিতে পার্থ গোপাল বণিকের বাসায় অভিযান চালিয়ে ৮০ লাখ টাকা জব্দ করে দুদক।

ফেসবুকে আমরা

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে