জলঢাকায় স্কুলে ঢুকে এক শিশু শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় থানায় এজাহার

প্রকাশিত: ১৬-০৯-২০২১, সময়: ১১:৫৭ |
Share This

হাসানুজ্জামান সিদ্দিকী হাসান জলঢাকা নীলফামারী প্রতিনিধি : নীলফামারীর জলঢাকায় স্কুলে ঢুকে প্রথম শ্রেণির শিশু শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ এনে ৭ জনের নামে থানায় এজাহার করেছে ঐ শিক্ষার্থীর মামা রবিউল ইসলাম। শিশু কে মারধরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ৮ জন আহত হয়েছেন।এদের মধ্যে তিন জনকে জলঢাকা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কৈমারী ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের বিন্নাকুড়ী দীঘিরপাড় নামক এলাকায়। স্থানীয় ও এজাহার সূত্রে জানা গেছে সোমবার সকালে ব্রাক স্কুল খুলে প্রথম শ্রেণির ছাত্রী আরিফা আক্তার বসার নিজ আসনটি ঝাড়ু দিয়ে পরিস্কার করাকে কেন্দ্র করে তার সহপাঠী মুন্নি আক্তারের সাথে ঝগড়া লাগে । মুন্নি আক্তার দৌড়ে গিয়ে তার বাবাকে স্কুলে ডেকে নিয়ে আসে । মুন্নির বাবা মতিনুর এসে ঘটনার কোন কিছু না বুঝে না শুনে আরিফাকে মারধর করে। আরিফা মার খেয়ে কাদতে কাদতে বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি তার অভিভাবক কে জানায়। এরই সুত্র ধরে মুন্নির বাবা মতিনুর দলবদ্ধ হয়ে এসে আবারো শিশু আরিফার পরিবারে ওপর ও বাড়ীতে হামলা চালায়। এ ঘটনার এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের রুপ নেয়। এ সংর্ঘসের ঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে ৮ জন আহত হয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা। এবিষয়ে জলঢাকা থানার অফিসার ইনচার্জ ফিরোজ কবির জানান শিশুকে মারধরের বিষয় টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।।

উপরে