জরাজীর্ণ ছাপড়া ঘরে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন বিধবা অনিতা

প্রকাশিত: ১৭-০৮-২০২১, সময়: ১০:৩৪ |
Share This

তালা(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি ঃ ঘরের ছ্উানি নেই,বারান্দায় টিনের ছাউনি ,পলিথিনের বেড়া, ভাঙাচোরা বেড়ার বারান্দায় বিধবা অনিতার সংসার। শোবার ঘরের দেয়াল নেই। কাদামাটির ঘরে সাপ, ব্যাঙ আর কেঁচোর সঙ্গে নিত্য যুদ্ধ। কাদামাটির ঘরটি দেখলে চোখে পানি চলে আসে, এমন পরিবেশে কোন মানুষ বসবাস করতে পারে? মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে পুর্নবাসনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা মানবতার মা শেখ হাসিনা জমি ও ঘর উপহার দিলেও অনিতার কপালে জোটেনি সরকারি ঘর। এই কাদামাটির ঘরের বারান্দায় কোন রকমে বসবাস করা অনিতা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রাণের আকুতি মাথা গোঁজার ঠাঁই চায়।
সাতক্ষীরা তালা উপজেলার সদর ইউনিয়নের জেয়ালা নলতা গ্রামে মৃত সুকুমার দেবনাথ ( মনু) স্ত্রী অনিতা দেবনাথ(৫০)।এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে অভাব-অনাটনের মধ্য দিয়ে সংসার চলতো তাদের। মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন। অনিতার স্বামী মারা গেছে চার বছর আগে।স্বামীর মৃত্যুর পর ছেলেকে নিয়ে সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। অর্ধাহারে, অনাহারে বাড়ীর বারান্দায় প্রতিবেশীদের লাঞ্চনা গঞ্জনা শুনে দিন রাত অতিবাহিত করেছে।সামান্য বৃষ্টি হলেই ঘর পানিতে থই থই করে, সেই পানি চলে আসে বারান্দায়।তখন সেখানে বসবাস করা দুরহ হয়ে পড়ে।
অনিতার চোখে নেই রঙ্গিন স্বপ্ন। চাই একটু নির্ভরতা ও মাথা গোঁজার ঠাঁই। জরাজীর্ণ ছাপড়া ঘরে মানবেতর জীবনযাপন কাটাচ্ছেন সে। স্বামীর হাতে তৈরি করা ঘরটি আম্ফান ঝড়ে লন্ড ভন্ড করে দিয়ে গেছে । সেই থেকে কাদামাটির মধ্যে বসবাস করছে সে। তার কাছে ঘর মেরামত করার মতো অর্থ নেই । এমনকি সরকারি কোন অনুদানও পান না তিনি। দু’বেলা দু মুঠো খাবারের সন্ধান করতে গিয়ে ঘর মেরামত করার চিন্তা ভুলেই গেছে। ডিজিটাল যুগে শতভাগ বিদ্যুৎ’র এই উপজেলায় অনিতার ঘরে নেই বিদ্যুৎ । ছেলেটি এখনো অনেক ছোট,তাই ঠিকমত আয় রোজগার করতে পারেনা
অনিতা আক্ষেপ করে প্রতিনিধিকে জানান, লোক মারফত জানতে পেরেছি, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে পুর্নবাসনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা মানবতার মা শেখ হাসিনা জমি ও ঘর উপহার দিচ্ছেন। ইউএনও স্যারের মাধ্যমে বহু মানুষ ইতিমধ্যে জমি ও ঘর পেয়েছে, তারা সেখানে বসবাস করছে, আপন ঠিকানা পেয়েছে। অনেকে জমি ও ঘর পেলেও সেখানে বসবাস করে না পতিত অবস্থায় আছে। আর আমি ঘরের অভাবে মানবেতর জীবণ যাপন করছি। আমি স্থানীয় অনেকের কাছে বলেছি কিন্তু কেউ আমার দুঃখ কষ্ট বোঝেনি। আমি একজন অসহায় গৃহহীন মানুষ, তাই ইউএনও স্যারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী মানবতার মা শেখ হাসিনার কাছে মাথা গুজার ঠাঁই চাই। তা না হলে খোলা আকাশের নীচে থাকা ছাড়া উপায় থাকবে না।

ফেসবুকে আমরা

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে