আশাশুনিত চুরি যাওয়া মূর্তি উদ্ধার

প্রকাশিত: ২৫-০৭-২০২১, সময়: ১৫:৩০ |
Share This

আহসান হাবিব, আশাশুনি ব্যুরা: আশাশুনির কাপসন্ডায় সার্বজনীন জগদ্ধাত্রী মদির পরিদর্শন করছন সহকারী পুলিশ সুপার (দবহাটা সার্কল) এস.এম জামিল আহম্মদ। রাববার বলা ১১ টায় এএসপি জামিল আহম্মদ উপ¯িত হয় মদিরর সভাপতি সাংবাদিক কষ্ণ মাহন ব্যানার্জী ও সাধারণ সম্পাদক মধস ব্যানার্জীসহ উপ¯িত ব্যক্তিবর্গর সাথ কথা বলন। এ সময় তিনি গত ৮ জুলাই মদিরর তালা ভঙ্গ কষ্ণ ও নারায়ণ ঠাকুরর দু’টি মূর্তি চুরি হওয়ার বিষয় শানন ও মদিরর চারপাশ বসবাসকারীদর খাঁজখবর নন। পর তিনি সাংবাদিকদর বলন, মদির থক মূর্তি চুরি হওয়ার ঘটনায় আমরা খুবই অনুতপ্ত। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারর মাধ্যম দ্রæত চারদর চিহ্নিত ও মূর্তি উদ্ধার কর দাষীদর বিরুদ্ধ আইনগত ব্যব¯া গ্রহন করা হব। তিনি বলন, আমাদর দক্ষ অফিসাররা মাঠ কাজ করছ, দ্রæতই মাটিভ উন্মাচন হব। এসময় উপ¯িত ছিলন, আশাশুনি থানার এসআই জাহাঙ্গীর হাসন, মামুন হাসনসহ পুলিশ কর্মকর্তাবদ। মুর্তি চুরি হওয়ার পর ইতাপূর্ব আশাশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ মু. গালাম কবির, পুলিশ পরিদর্শক (তদÍ) মাহফুজুর রহমান ও এসআই জুয়ল রানা, এসআই জাহাঙ্গীর হাসন পথক পথক ভাব ঘটনা¯ান পরিদর্শন করন।

ক্যাপশান: আশাশুনির কাপসন্ডায় মূর্তি চুরি যাওয়া মদির পরিদর্শন করছন সহকারী পূলিশ সুপার (দবহাটা সার্কল) এসএম জামিল আহম্মদ।

আশাশুনিত ভ্রাম্যমান আদালত জরিমানা আদায়

আশাশুনি ব্যুরা: আশাশুনিত করানা ভাইরাসর ২য় ঢউ এর হাত থক জনগণক রক্ষার লক্ষ্য ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা কর এক ব্যবসায়ীক ১০০০ টাকা জরিমানা করা হয়ছ। রাববার উপজলার বিভিন ¯ান সহকারী কমিশনার (ভমি) শাহীন সুলতানা ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা কাল লকডাউনর বিধি নিষধ অমান্য করায় বড়দল ইউনিয়নর গায়ালডাঙ্গা বাজার ব্যবসায়ী আব্দুল মালক সরদারর পুত্র শরিফুল ইসলামক ১০০০ টাকা জরিমানা করন। এছাড়া বড়দল বাজার ও বড়দল ব্রীজ (পাইকগাছা সীমাÍ) সহ বিভিন বাজার এবং বিভিন সড়ক টহল ও অভিযান পরিচালনা করা হয়। সাথ সাথ ভবিষ্যত স্বা¯্য বিধি অমান্য না করার জন্য ব্যবসায়ী ও জনসাধারণক সচনতন করা হয়।

আশাশুনিত ৮ম দিন ৩৬৫ জনক টিকা প্রদান

আশাশুনি ব্যুরা: আশাশুনিত সারাদশর ন্যায় পুনরায় করানা টিকাদান শুরুর ৮ম দিন ৩৬৫ জনক টিকা দওয়া হয়ছ। রাববার আশাশুনি স্বা¯্য কমপ্লক্স সকাল ১০টা থক দুপুর পর্যÍ টিকাদান কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। পূর্ব নিবন্ধনকত ও চলতি নিবন্ধনকরা ব্যক্তিরা টিকা গ্রহন করন। এনিয় ২য় দফায় ৮ম দিন ৩৬৫ জন এবং সর্বমাট ১,৮৪২ জন টিকা গ্রহন করছন।

আশাশুনিত বিশ্ব পানিত ডুব শিশু মত্যু প্রতিরাধ দিবস পালন

আশাশুনি ব্যুরা: আশাশুনিত সরকার ঘাষত কঠার লকডাউনর ফল বিশ্ব পানিত ডুব মত্যু প্রতিরাধ দিবস’২১ আনুষ্ঠানিকতার সাথ পালন করা সম্ভব না হলও দিবসর তাৎপর্য ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদর করনীয়তা সম্পর্ক সচতন করা হয়ছ। বাংলাদশর দক্ষিণ পশ্চিম উপকূলিয় অঞ্চল সাতক্ষীরা জলার আশাশুনি ও শ্যামনগর উপজলা দু’টি নদী বষ্টিত দুর্যাগ প্রবণ এলাকা। শ্যামনগর উপজলার ঝুঁকিপূর্ণ ইউনিয়ন পদ্মপুকুর, বুড়িগায়ালীনি ও গাবুরা এবং আশাশুনি উপজলার প্রতাপনগর, আনুলিয়া ও শ্রীউলা ইউনিয়নর বিগত দিনগুলাত প্রতিবছরই পানিত ডুব শিশু মত্যুর ঘটনা ঘটছ। বর্তমান বসরকারী সং¯া ফ্রন্ডশিপ ‘জনগাষ্ঠির উদ্যাগ দুর্যাগ ঝুকি হ্রাস’ (সি.আই.ডি.আর.আর) প্রকল্পর মাধ্যম পানিত ডুব শিশু মত্যু প্রতিরাধ বিষয়ক বিভিন কার্যক্রম পরিচালনা কর আসছ। প্রকল্পর উদ্দশ্য হল এলাকার জনগাষ্ঠীর দুর্যাগ ঝুঁকি কমানার জন্য নিজদর উদ্যাগ উৎসাহিত করা এবং বিভিন দপ্তর যাগাযাগর মাধ্যম দুর্যাগ ঝঁকি হ্রাস করা। ফ্রন্ডশিপ শ্যামনগর ও আশাশুনি উপজলার ২৪টি কমিউনিটিত ৭২০জন উপকারভাগীক পানিত ডুব শিশু মত্যু প্রতিরাধর বিষয় সচতন করার জন্য কমিউনিটি পর্যায় সাঁতার প্রশিক্ষণ ও পানিত ডুব শিশু মত্যু প্রতিরাধ বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদান কর। প্রশিক্ষণর মাধ্যম পানিত ডুব শিশু মত্যুর কারনর প্রতিকার ব্যব¯া বিষয় ধারনা দওয়া হয়। পাশাপাশি শিশুদর সাঁতার শখানার বিভিন কশল বিষয় ধারনা দওয়া হয়। প্রতিটি কমিউনিটিত ২জন কর সাঁতার প্রশিক্ষক তরি করা হয়। ফ্রন্ডশিপ সং¯ার আঞ্চলিক ব্যব¯াপক মিজানুর রহমান বলন, ফ্রন্ডশিপ ২০১৪ সাল থক শ্যামনগর ও আশাশুনি উপজলায় পানিত ডুব শিশু মত্যু প্রতিরাধ কার্যক্রম পরিচালনা কর আসছ। বর্তামান ২৪টি কমিউনিটিত প্লাস্টিক জারর মাধ্যম সাঁতার প্রশিক্ষণ ও কলসির মাধ্যম সাঁতার প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলমান আছ। গত ১ বছর কমিউনিটির নিজস্ব উদ্যাগ ২১৩ জন শিশুক সাঁতার শিখানা হয়ছ। যার ফল গত ১ বছর ওই কমিউনিটিত কান শিশু পানিত ডুব মারা যায়নি। এছাড়া আমাদর পরিকল্পনা হছ ভবিষ্যত কান শিশু যন আর পানিত ডুব মারা না যায়, স লক্ষ্য আমাদর কার্যক্রম চলমান রাখা, যা কমিউনিটির নিজস্ব উদ্যগ নিজরাই তাদর শিশুদর সাঁতার প্রশিক্ষণ দিয় পানিত ডুব শিশু মত্যুর হাত থক রক্ষা পাব।

ফেসবুকে আমরা

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে