স্টাফ রিপোর্টার: গত ১০ জুন শুক্রবার রাজধাণীর একটি অডিটরিয়ামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ (প্রাক্তন মৃত্তিকা বিজ্ঞান) বিভাগের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের এলামনাই এসোসিয়েশন “ইডাফস” এর বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।এতে সভাপতিত্ব করেন প্রফেসর ড এস. এম. ইমামুল হক, ভাইস প্রেসিডেন্ট, ইডাফস। এসময় মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের বিভিন্ন বরেণ্য শিক্ষকসহ প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতিতে সভাটি এক মহা মিলনমেলায় পরিণত হয়। সভার মূল প্রতিপাদ্য ছিল নির্বাচনের মাধ্যমে ইডাফস এর ৪৩ পদ বিশিষ্ট নবগঠিত কার্যনির্বাহি কমিটি’র (২০২২-২৪) সদস্যদের নাম ঘোষণা করা। নবনির্বাচিত সদস্যরা হলেন: প্রফেসর ড মো: দিদার-উল-আলম (প্রেসিডেন্ট), মো: সাইফুল আলম লালিম (ভাইস প্রেসিডেন্ট), এ. বি. এম. রেজাউল কবির কাওসার (ভাইস প্রেসিডেন্ট), সৈয়দ নূরুল ইসলাম (ভাইস প্রেসিডেন্ট), মো: আবুল ফজল মীর (মহাসচিব), চিন্ময় মুখার্জী (যুগ্ম মহাসচিব), আরিফুর রহমান (যুগ্ম মহাসচিব), ড মো: জাকির হোসেন খান (কোষাধ্যাক্ষ), মো: আবু হাসান (যুগ্ম কোষাধ্যাক্ষ), মো: ইমাম হোসেইন (যুগ্ম কোষাধ্যাক্ষ), মোহাম্মদ রাশিদুল ইসলাম খান (সাংগঠনিক সম্পাদক) ও মো: আরিফ হাসান (মুদ্রন ও প্রকাশনা সম্পাদক)। এছাড়া সভায় আরও ৩১ জন সদস্যের নাম ঘোষণা করা হয়। ইডাফস এর এই নির্বাচন (২০২২) পরিচালনা করেন প্রফেসর ড মো: খলিলুর রহমান (প্রধান নির্বাচন কমিশনার), ওমর ফারুক (নির্বাচন কমিশনার) ও মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন (নির্বাচন কমিশনার)। রিটার্নিং অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারের দায়িত্বে ছিলেন যথাক্রমে আ. তারাক্কি-এ-কামাল ও মোহাম্মদ মাহমুদুল হাসান। উল্লেখ্য, ১৯৪৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে “মৃত্তিকা বিজ্ঞান” বিভাগ প্রতিষ্ঠিত হয়। বিভাগটি প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে তৎকালীন পূর্ব বাংলার শস্য উৎপাদন সংক্রান্ত গবেষণার মাধ্যমে অসামান্য অবদান রেখে আসছে। দেশের ক্রমবর্ধমান খাদ্যশস্যের চাহিদা মেটানো, ক্রম-অবনতিশীল পরিবেশ সুরক্ষা, টেকসই কৃষি ব্যবস্থা চালু ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রেক্ষিতে ২০০০ সালে এই বিভাগের গবেষণার পরিধি আরও বিস্তৃত করে বিভাগের নাম পরিবর্তন করে “মৃত্তিকা পানি ও পরিবেশ রাখা” হয়। এ বিভাগের এলামনাই এসোসিয়েশন “ইডাফস” ১৯৮১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।