ডেস্ক রিপোর্ট : সাবেক স্ত্রীর বিরুদ্ধে করা মানহানির মামলায় জিতেছেন হলিউড তারকা জনি ডেপ।আদালত তার সাবেক স্ত্রীকে ১৫ মিলিয়ন বা দেড় কোটি ডলার অর্থদণ্ড দিয়েছেন।খবর বিবিসির।মাত্র ১৫ মাস সংসার করে ২০১৬ সালের মে মাসে বিচ্ছেদের আবেদন করেন হলিউড তরকা দম্পতি জনি ডেপ ও আম্বার হার্ড।স্ত্রী আম্বারের অভিযোগ ছিল, জনি তাকে শারীরিক, মানসিক ও মৌখিকভাবে নির্যাতন করেছেন। ডেপ সেসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।
২০১৮ সালে সেই নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট–এ একটি উপসম্পাদকীয় লেখেন আম্বার হার্ড।স্বামীর হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন, পত্রিকায় এ নিয়ে নিবন্ধ লেখায় সাবেক স্ত্রীর নামে ৫০ মিলিয়ন ডলারের মানহানির মামলা করেছেন পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান তারকা জনি ডেপ।পরে হার্ড উল্টো ১০০ মিলিয়ন ডলার মানহানির মামলা করেন জনির বিরুদ্ধে। গত মঙ্গলবার মামলার শুনানি শুরু হয়।পাবলিক ফিগার হয়েও নিজেকে স্বামীর নির্যাতনের শিকার বলে দাবি করেন হার্ড। সেখানে তিনি লেখেন, ‘নির্যাতনের অভিযোগের পরও প্রতিষ্ঠানগুলো কীভাবে অভিযুক্ত পুরুষদের রক্ষা করে, বাস্তব জীবনে সেটা দেখার বিরল সুযোগ আমার হয়েছিল।যদিও সেখানে তিনি তার সাবেক স্বামীর নাম উল্লেখ করেননি। তবু জনি ডেপ লেখাটির কারণে তার ক্যারিয়ারে ক্ষতি হয়েছে দাবি করে হার্ডের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন।পরে আদালত জনির পক্ষে রায় দেন।