বাগেরহাট প্রতিনিধি :বাগেরহাট জেলার ৯টি উপজেলার অবৈধ ক্লিনিক ও প্যাথলজির বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ। এসময় বৈধ কাগজপত্র না থাকায় জেলায় মোট ১৮ টি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা, ২৯ টি মামলা ও ৪ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে । এর মধ্যে মোংলার ১১ ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা, ২টি মামলা ৬ হাজার টাকা জরিমানা। চিতলমারি ২টি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সিলগালা, ১১টি মামলা ১ লাখ ৩৫ হাজার জরিমানা। শরনখোলা ২টি সিল গালা, ৫টি মামলা ১ লাখ ৫০ হাজার জরিমানা। মোরেলগঞ্জ ৩টি সিলগালা ১ টি মামলা, ১ লাখ ৩ হাজার টাকা জরিমানা। ফকিরহাটের ১টি মামলা ৫ হাজার টাকা জরিমানা ও কচুয়া ১টি মামলা ৫ হাজার টাকা জরিমানা ।
বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হাফিজ আল আসাদ বলেন, সারাদেশে অবৈধ ক্লিনিক ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টার বন্ধের নির্দেশ দিয়ে তিন দিনের সময় বেঁধে দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এরই অংশ হিসাবে বাগেরহাট জেলার ৯টি উপজেলায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এর মধ্যে বৈধ কাগজ পত্র না থাকায় ১৮ প্রতিষ্ঠান সিলগালা , ২৯টি মামলা আর ৪ লাখ টাকা জরিমান আদায় করা হয়েছে । এই অভিযান অব্যাহত থাকবে ।