ডেস্ক রিপোর্ট : ছাত্রদলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ অধিকাংশ নেতা ছাত্র নন, তারা ছাত্রের বাবা বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ । ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষের ইস্যুতে ছাত্রদলের নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, ‘ছাত্রদল যারা করেন, তাদের বয়স এখন কত? যারা ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, তারা কি ছাত্র? তাদের বয়স ৪০-এর কোঠায়। তারা তো ছাত্রের বাবা। ছাত্রের বাবারা যখন শিক্ষাঙ্গনে প্রবেশ করতে চান, তখন ছাত্ররা তো উত্তেজিত হবেই। এটা খুব স্বাভাবিক। রবিবার দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে সমসাময়িক ইস্যুতে ব্রিফিংকালে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের সাম্প্রতিক সংঘর্ষের বিষয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘ছাত্রদলের পক্ষ থেকে প্রথমে উসকানি এসেছে। ছাত্রলীগ দেয়নি। যখন বহিরাগত সন্ত্রাসীদের নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে তারা প্রবেশ করতে চেয়েছেন, তখন বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত ছাত্ররা বাধা দিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া মুক্ত আছেন। তার দণ্ড স্থগিত করে মুক্তভাবে জীবনযাপনের সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। সুতরাং দেশে বিএনপির নেতৃত্বে বিশৃঙ্খলা, অগ্নিসন্ত্রাস, নৈরাজ্যের মতো ঘটনা ঘটলে দায় বেগম জিয়ার ওপরও বর্তায়। সে জন্যই প্রশ্ন এসেছে। বেগম জিয়াকে এভাবে বাইরে রাখার প্রয়োজন আছে কি না। অনেকে দাবি তুলেছেন তাকে আবার কারাগারে পাঠানো হোক।