মোঃ শাহাদত হোসেন বকুল রংপুর থেকে : রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার ২ নং হারাগাছ ইউনিয়নভুক্ত চর একতা বাজার হয়ে বকুলতলা বাঁধের উত্তর পাশ্ববর্তী জনৈক আব্দুল করিম মুন্সীর মসজিদ হইতে হারাগাছ ইউনিয়নের শেষ মাথা মরহুম গেল্না ঘাটিয়ালের বাড়ি পর্যন্ত ২৯১০ মিটার রাস্তা পাকা করনের ডেস কার্পটিং এর কাজ গত ২২/০২/২২ ইং তারিখে শুরু হয়েছে এবং ইতিমধ্যে প্রায় ১০০০ মিটারের ডেস কার্পটিং শেষ হয়েছে, বাকী কাজ চলমান। এ ব‍্যাপারে আজ ২৪/০২/২২ ইং তারিখে আমাদের প্রতিনিধি রাস্তার কাজ দেখতে গেলে সেখানে উক্ত রাস্তার ঠিকাদার মোঃ আনারুল ইসলাম রানা বলেন, কাজ অত‍্যন্ত সুন্দর ভাবে হচ্ছে। কাজের রিভাইজ অনুযায়ী করা হচ্ছে। যেহেতু এই চরাঞ্চলের রাস্তাঘাট অনেক খারাপ, এই প্রথম এই হারাগাছ ইউনিয়নে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার অবদান হিসেবে মাননীয় বাণিজ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা টিপু মুন্সীর নির্বাচনী অঙ্গীকার বাস্তবায়ন সহ চরের মানুষের প্রানের দাবি এই রাস্তাটি সেহেতু এই রাস্তার কাজ আমি নিজেই সাথে থেকে উপজেলা প্রকৌশলী এবং সহকারি প্রকৌশলী কাউনিয়ার সরাসরি তত্ত্বাবধানে সুন্দর ভাবে কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। এ ব‍্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আসাদুজ্জামান জেমীর সাথে আমাদের প্রতিনিধি স্বাক্ষাৎকারে জানতে চাইলে তিনি বলেছেন এই এলাকার মানুষগুলো অত‍্যন্ত মানবিক এবং তাদের আন্তরিকতার জন‍্যই আমরা এই রাস্তার কাজটি অত‍্যন্ত সুন্দর ভাবে করতে পারছি। কাজ হচ্ছে রিভাইজ অনুযায়ী এখানে আমি আমার সততা ও বিশ্বস্থতা দিয়ে করতে পারব ইনশাআল্লাহ। তিনি আরও জানান আমাদের রংপুর জেলা সহকারী প্রকৌশলী সহ এল জি ই ডির অনেক কর্মকর্তা আজ রাস্তা পরিদর্শনে এসে কাজের মান দেখে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন এ রকম ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান যদি এই রাস্তা ব্রীজ কালভার্টের কাজগুলো পায় তাহলে এলাকার জণগন নিঃসন্দেহে অনেক ভাল মানের কাজ পাবে বলে আমাদের বিশ্বাস। আমরা সবাই এই চরাঞ্চলের জন‍্য যেন বাকী রাস্তা গুলো খুব দ্রুত করে দিতে পারি সেজন্য চেষ্টা অব‍্যাহত আছে। উন্নয়ন এর রোল মডেলে যখন বাংলাদেশ একটি অবস্থানে সেখানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার কারিগর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনা প্রত‍্যেকটি গ্রাম হবে শহরের মত এই স্লোগানকে সামনে রেখে আমাদের সবাইকে উন্নয়নমুলক কাজে সহায়তা করে বাংলাদেশকে আরও কয়েকধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে আমাদের ভুমিকা অনেকাংশে অনেক মানবিক হওয়া দরকার।