তেরখাদা থেকে ফিরে মীর রাজিবুল হাসান নাজমুল : খুলনার তেরখাদা উপজেলায় নানাবাড়ি বেড়াতে এসে নিখোঁজ যমজ শিশু মনি ও মুক্তার লাশ উদ্ধারের ঘটনায় তাদের মায়ের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করা হয়েছে।শুক্রবার রাতে নিহত শিশুদের বাবা মাসুম বিল্লাহ বাদী হয়ে থানায় মা কানিজ ফাতেমা কণার বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।এর আগে সকালে তেরখাদার ছাগলাদাহ ইউনিয়নের কুশলা গ্রামের খায়ের শেখের বাড়ির পুকুর থেকে আড়াই মাস বয়সী মণি ও মুক্তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।নিহত মণি ও মুক্তা বাগেরহাটের মোল্লাহাট উপজেলার মাসুম বিল্লাহর সন্তান। তাদের নানা খায়ের শেখ।মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তেরখাদা থানার এসআই এনামুল হক জানান, মনি ও মুক্তার লাশ উদ্ধারের পর তাদের মাসহ তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়। পরে বাকি দুজনকে ছেড়ে দেওয়া হলেও কণাকে আটক রাখা হয়েছে।স্থানীয়রা জানান, বাগেরহাটের মোল্লারহাটে মাসুম বিল্লাহর সঙ্গে প্রায় ছয় বছর আগে তেরখাদার কনা বেগমের বিয়ে হয়। মাসুম চাঁদপুরে একটি কোম্পানিতে চাকরি করেন। শুক্রবার দিবাগত রাতে মায়ের সঙ্গে শিশু দুটি ঘুমানো ছিল।মধ্যরাতের দিকে শিশু দুটিকে না পেয়ে খুঁজতে শুরু করে। পরে ভোরে একটি পুকুর থেকে তাদের লাশ উদ্ধার হয়।তেরখাদা থানার ওসি জহুরুল আলম জানান, কণার স্বামী একটি ওষুধ কোম্পানিতে বিক্রয় প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেন। আবার সন্তানসম্ভবা হওয়ায় দুই কন্যাশিশুকে নিয়ে কয়েকদিন আগে বাবার বাড়ি যান কণা।তেরখাদা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাসুম কাজী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘরের মধ্য থেকে শিশু দুটি নিখোঁজ হওয়া রহস্যজনক। বিষয়টির তদন্ত চলছে।