ডেস্ক রিপোর্ট : ইউটিউব ও ফেসবুক থেকে শুরু করে ভিডিও শেয়ারিং প্রত্যেকটি প্ল্যাটফর্মে বেশ কিছু দিন ধরে আলোচনায় ‘কাঁচা বাদাম’ শিরোনামের একটি গানটি। যার সঙ্গে পরিচিত হয়ে উঠেছে আরেকটি নাম ‘ভুবন বাদ্যকর’। ভারতের বীরভূম জেলার দুবরাজপুর ব্লকের কুড়ালজুড়ি গ্রামের বাসিন্দা ভুবন মূলত এই গানে ‘কাঁচা বাদাম’ বিক্রি করতেন। যা পরবর্তীতে ভাইরাল হয়ে যায় এবং উৎসুক মানুষের চাপে বাদাম নিয়ে বেরই হতে পারছিলেন না।পরে গানটির কয়েকটি ভার্সনে কণ্ঠ দেওয়ার পাশাপাশি মডেলিংও করতে দেখা গেছে বীরভূমের এই আলোচিত ব্যক্তিকে। এরই মধ্যে শিল্পী হিসেবেই বেশি পরিচিত তিনি। তাই পুরোনো পেশা ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ভুবন। জানা গেছে, সম্প্রতি গোধূলিবেলা মিউজিক কোম্পানি নামের যে প্রতিষ্ঠান প্রথম তার গান প্রকাশ করেছিল, তারাই এবার তার সঙ্গে তিন লাখ রুপির চুক্তি করেছে। এরপরই ভুবন এ ঘোষণা দিয়েছেন। ভারতীয় গণমাধ্যম এবিপি আনন্দকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, আমার গান নানা জায়গায় বাজছে। নাইজেরিয়ায়ও বেজেছে। সবাই নাচছে আমার গানে। খুব ভালো লাগছে। বিভিন্ন জায়গা থেকে ডাক পাচ্ছি।ভুবনের গাওয়া ‘কাঁচা বাদাম’ গান ছড়িয়ে পড়েছে বিদেশেও। প্রত্যেকেই নিজের মতো করে তার গানের আলাদা আলাদা সংস্করণও বের করছেন।বীরভূমের ইলামবাজারে গোধূলিবেলা মিউজিক কোম্পানির অফিসে বৃহস্পতিবার ভুবনের সঙ্গে কপিরাইট চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। এখন থেকে ভুবনের ওই গান ব্যবহার করার আগে তাদের অনুমতি নিতে হবে প্রত্যেককে। তার বিনিময়ে পারিশ্রমিকও মিলবে।