মোঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর, (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : পিতাকে ভরণ পোষন না করায়,সম্পত্তি জোরপূর্বক আত্মসাৎ করা ও রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করার অপরাধে জেলার নাসিরনগর উপজেলার গুনিয়াউক ইউনিয়নের গুনিয়াউক গ্রামের আলী রাজার ছেলে নিশ্চিন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোঃ সাহাবুদ্দিন আহম্মেদ দানু মাস্টারের বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে তার পিতা আলী রাজা বাদী হয়ে সিআর মামলা নং ৫৪৩/২১ দায়ের করেছে। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আবারও গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করেছে বলে জানান দানু মাস্টারের বোন বোন হামিদা বেগম। স্থানীয় সূত্রে আরো জানা গেছে, ২০২০ সালের ২৮ ডিসেম্বর পিতাকে মারপিট করার অপরাধে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আদালতে সিআর ৩৮৬/২০ পেনাল কোডের ৩২৩/৩৮০ ধারা মতে উক্ত দানু মাস্টারের বিরুদ্ধে তার পিতা আলী রাজা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করলে, আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে শিক্ষক পুত্রের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করে। পরবর্তীতে এলাকার স্থানীয় গন্যমন্য বক্তিবর্গ ও চেয়ারম্যান মেম্বারের মধ্যস্থতায় আদালতে উপস্থিত হয়ে ১৫০/- টাকার ননজুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে আপোষ নামা সম্পন্ন করে মামলা থেকে অব্যাহতি পায়। পরবর্তীতে ওই আপোষ নামার শর্ত অমান্য করে ১২ ডিসেম্বর ২০২১ রোজ রবিবার সকাল অনুমান ৭ ঘটিকার সময় শিক্ষক শাহাবুদ্দিন আহমেদ দানু মাস্টার লোহার রড দিয়া তাহার পিতা আলী রাজাকে বাইরাইয়া মারাত্বক জখম করে এবং তার বৃদ্ধ পিতার চিকিৎসার জন্য সুকেচের ড্রয়ারে থাকা ৫০ হাজার চুরি করে নিয়ে যায়। ওই ঘটনায় পরবর্তীতে পিতা আলী রাজা হাসপাতাল থেকে চিকিৎসার সনদ সংগ্রহ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করে।