ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের আশপাশের এলাকা থেকে রুশ বাহিনী সরে যাওয়ার পর একের পর এক মৃতদেহের সন্ধান পাচ্ছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।
চকিয়েভের পুলিশ প্রধান আন্দ্রি নেবিতোভ জানিয়েছেন, দুঃখের সঙ্গে আমি জানাচ্ছি- আমরা ৯ শতাধিক বেসামরিক ব্যক্তির মৃতদেহ খুঁজে পেয়েছি এবং তাদের ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদের কাছে স্থানান্তর করেছি। খবর দ্যা গার্ডিয়ানের।এদের মধ্য ৯৫ লোকের দেহে বুলেটের চিহ্ন আছে। নেবিটভ আরও বলেন, এর মধ্যে ৩৫০টিরও বেশি মৃতদেহ বুচা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।
যেখানে রুশ মেনারা যে নৃশংসতা চালিয়েছে, তার জন্য তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ এনেছে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ। গণহত্যা চালানোর অভিযোগও তোলা হয়েছে। যদিও মস্কো কড়া সমালোচনা করে তা অস্বীকার করেছে।
রুশ সেনারা চলে যাওয়ার পর বোরোদিয়াঙ্কা এবং মাকারভের ধ্বংসস্তুপ অপসারণের কাজ এখনও চলছে।
পুলিশ প্রধান বলেন, এখনও ধ্বংসস্তূপের নীচে অসংখ্য মানুষের মরদেহ থাকতে পারে। এজন্য উদ্ধার অভিযান অব্যাহত থাকবে।এর আগে রাজধানী কিয়েভের পার্শ্ববর্তী বুচা শহরের মেয়র বলেছিলেন, চেচেন যোদ্ধারা এলাকাটি নিয়ন্ত্রণ করার সময় রাশিয়ান বাহিনীর হাতে তিনশ’র বেশি বাসিন্দা নিহত হয়েছেন।