কালীগঞ্জে মা মারা যাবার ৭দিন পর করোনায় আক্রান্ত মেয়ের মৃত্যু

প্রকাশিত: ০৬-০৪-২০২১, সময়: ১২:০৮ |
খবর > ফিচার
Share This

ফিরোজ আহম্মেদ,কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সালমা আক্তার মুন্নি (৩০) নামের এক যুবতীর মৃত্যু হয়েছে।
মঙ্গলবার সকালে রাজধানীল কুর্মিটোলা হাসপাতালের চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মুন্নি কালীগঞ্জ উপজেলার ঝনঝনিয়া গ্রামের আঃ হামিদ বিশ্বাসের মেয়ে।
মুন্নির চাচাতো ভাই সাবেক ইউপি সদস্য জাকির হোসেন জানান, ২০ দিন আগে শ্বাসকষ্ট শুরু হয় মুন্নির। গত সপ্তাহে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার শারিরীক অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় রেফার্ড করে চিকিৎসক।
যশোর থেকে মুন্নিকে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে করোনা চেকআপ করালে তার করোনা পজেটিভ আসে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মঙ্গলবার সকালে তার মৃত্যু হয়। জাকির হোসেন আরও জানান, গত (৩১ মার্চ) মুন্নির মা ময়না বেগম ঢাকাতে মারা যান । করোনা আক্রান্ত মেয়ে মুন্নির সাথে ঢাকাতে গিয়েছিলেন তিনিও । তবে কি কারনে তার মা মারা যান তা বলতে পারছেন না জাকির হোসেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে কালীগঞ্জের কাস্টভাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন বলেন, মুন্নির লাশ ঢাকা থেকে গ্রামে আনা হচ্ছে।
মুন্নি যশোর এমএম কলেজ থেকে মাস্টার্স শেষ করে চাকুরীর জন্য পড়াশোনা করছিল।
বারবাজার পুলিশ ক্যাম্পের আইসি এসআই মকলেচ উজজ্জামান জানান, আমরা ধারনা করছি করোনা আক্রান্ত মেয়ের সাথে মা ঢাকাতে যাবার কারনে মা ময়না বেগমও করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্য হতে পারে। তবে আমরা সকল প্রকার স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার জন্য সকলকে অনুরোধ করে যাচ্ছি।

ফেসবুকে আমরা

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে