মামুনুল হককে অবরুদ্ধ করার ঘটনায় সোনারগাঁও থানার ওসি বদলি

প্রকাশিত: ০৫-০৪-২০২১, সময়: ০৬:৫১ |
Share This

ডেস্ক রিপোর্ট : হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে সোনারগাঁওয়ের একটি রিসোর্টে নারীসহ অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলামকে বদলি করা হয়েছে। রোববার রাতে সোনারগাঁও থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তবিদুর রহমান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এটিকে ‘জনস্বার্থে বদলি’ বলছেন তিনি। গত বছরের ৫ অক্টোবর সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্ব নেন রফিকুল ইসলাম। ৩ এপ্রিল হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হক এক নারীকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের রয়্যাল রিসোর্টে যান। পরে সেখানে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। মামুনুল হকের দাবি তিনি দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে রিসোর্টে অবকাশ যাপনে গিয়েছিলেন। এ ঘটনায় তাকে অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। হেফাজত কর্মীরা নারায়ণগঞ্জে বিক্ষোভ করে। রয়্যাল রিসোর্টসহ বিভিন্ন স্থাপনায় ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় রোববার যুবলীগ ও ছাত্রলীগের দুই নেতার নাম উল্লেখ করে লিখিত অভিযোগ দেয় হেফাজতে ইসলাম। সেই সঙ্গে থানা পুলিশকে দোষারূপ করছে হেফাজত। এ ঘটনার রোববার পর রাতে ওসিকে বদলি করা হয়। এবং ঘটনায় যে মামলা করা হয়েছে তার বাদী ঢাকা-১০ আসনের হেফাজত নেতা মুফতি ফয়সাল মাহমুদ হাবিবী। সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নু ও নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সোহাগ রনিকে প্রধান ও অজ্ঞাতনামা কতিপয় লোকজনকে আসামি করে এ অভিযোগটি দায়ের করেন। এ ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে সোনারগাঁ ও এর আশপাশের এলাকা। এ নিয়ে রোববার দিনভর বিভিন্ন এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা এ সময় কয়েকটি এলাকায় অবস্থান নেয় ও বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। দুপুরে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা সোনারগাঁ থানায় অবস্থান নেন।

ফেসবুকে আমরা

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে