কেশবপুরে শুরু হয়েছে বোরো আবাদের প্রস্তুতি : হালের মই টানছে মানুষে

এম. আব্দুল করিম কেশবপুর (যশোর) প্রতিধি: যশোরের কেশবপুরে পুরোদমে শুরু হয়েছে বোরো আবাদের প্রস্তুতি। যান্ত্রিক যুগে হালের বলদের অভাবে কৃষকের ক্ষেতে মই টানছে মানুষে। এক সময় এ এলাকার কৃষকদের ঘরে ঘরে ছিলো হালে অর্থাৎ চাষের গরু, ছিলো জোয়াল লাঙ্গলসহ কৃষি যন্ত্রপাতি। কৃষকের জমি চাষের গরু মহিষের স¤পর্ক সেই আদিকাল থেকে। কৃষকের জমি চাষ ও মই দেওয়ার কাজটি করতো গরু ও মহিষে। কিন্তু এই যান্ত্রিক যুগে প্রযুক্তির ছোয়ায় জমি চাষে ইঞ্জিন চালিত পাওয়ার টিলার ও ট্রাক্টর ব্যাবহার হলেও ক্ষেতে মই দিতে প্রযুক্তির কোন ব্যাবহার না থকায় মই চানতে হচ্ছে মানুষকে।
এমনই একটি চিত্র দেখা গেল ভালুক ঘরের মাঠে। দেখা গেল এক কৃষক তাঁর ছেলেকে নিয়ে হালচাষের জন্য মই টানছেন। এ সময় এক জন কৃষক বলেন একজন দিয়ে মই টানা অসম্ভব। তাই একজন প্রতিবেশী হিসেবে আরেক কৃষককে সহায়তার জন্য মই টানার কাজে আমি তাদেরকে সাহায্য করেছি। কেশবপুর থেকে হালের বলদ প্রায় বিলুপ্তির পথে। উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা, ফতেপুর, গরালিয়া বিলসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে এখন পুরোদমে কৃষক বোরো ধান রোপনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। কৃষক আবুল হোসেন বলেন, তার ৩ বিঘা জমিতে বোরো ধান চারা রোপণের পাওয়ার টিলার দিয়ে চাষ করে নেয়ার পর নিজেরাই মই টেনে জমি সমান করে চারা রোপণ করবেন। এবিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার মহাদেব চন্দ্র সানা বলেন ক্ষেতে গরু বা আধুনিক প্রযুক্তি ব্যাবহার করে মই দিলেও অধিক সমতল করার জন্য হাতে মই দেওয়ার প্রয়োজন আছে।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ