যশোরে ভাড়াটিয়া হয়েও কলেজ শিক্ষার্থীদের আটকে চাঁদা গ্রহন,এক নারী গ্রেপ্তার

যশোর প্রতিনিধি : ফ্ল্যাট ভাড়া দেওয়ার কথা বলে এক ভাড়াটিয়া কলেজ পড়–য়া দু’জন শিক্ষার্থীকে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী ডেকে আটকে রেখে ৩লাখ টাকা চাঁদাদাবি করে বিকাশে ৪০ হাজার টাকা চাঁদা গ্রহনের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ নারী সন্ত্রাসী শিলা খাতুন (৩৫) কে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে। তিনি যশোরের শার্শা উপজেলার শালকোনা গ্রামের ফুলসুদ্দিনের ছেলে।বেনাপোল পোর্ট থানার অর্ন্তগত সাদিপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে রেজওয়ান হোসেন ওরফে আকাশ (২২) শনিবার রাতে কোতয়ালি মডেল থানায় শিলা খাতুনসহ তার সহযোগী অজ্ঞাতনামা ২/৩ জন সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, যশোর এমএম কলেজে সে লেখপড়া করে। ইতিপূর্বে আকাশের সাথে শিলা খাতুনের পরিচয়। পরিচয়ের সূত্রধরে তাদের মধ্যে ফোনালাপ হয়। শিলা খাতুন যশোর শহরের ৯৭০ ঘোপ নওয়াপাড়া রোড জোড়া বাড়ির বিপরীতে জনৈক ফিরোজ খান বাড়ির ভাড়াটিয়া হিসেবে একটি ফ্ল্যাট নিয়ে একাই বসবাস করে। শিলা খাতুনের ফ্ল্যাটের পাশে অপর ফ্ল্যাট ভাড়া দেওয়ার কথা বলে আকাশকে বললে আকাশ তার বান্ধবী মহাসিনা আক্তার (২১)কে সাথে নিয়ে শনিবার ১২ সেপ্টেম্বও সকাল ১০ টায় উক্ত ভাড়াটিয়া বাড়িতে আসে। এদিকে শিলা খাতুন তার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের খবর দিয়ে আগে থেকে এনে রাখে। আকাশ তার বান্ধবী মহাসিনা আক্তারকে নিয়ে উক্ত বাড়ির ফ্লাট দেখতে গেলে তাদেরকে একটি কক্ষে আটকে রেখে ৩লাখ টাকা দাবি করে। টাকার জন্য শিলা খাতুনের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা আকাশ ও মহাসিনা আক্তারকে মারপিট করে। পরে আকাশ তার বন্ধুদের কাছে ফোনের মাধ্যমে শিলা খাতুনের মোবাইল নাম্বার বিকাশ হিসেবে দিলে উক্ত বিকাশের মাধ্যমে চাঁদা সরুপ ৩৯ হাজার ৬শ’ টাকা গ্রহন করে। এরপর আকাশ ও তার বান্ধবীকে ছেড়ে দিলে আকাশ বিষয়টি পুলিশকে জানালে পুলিশ এসে উক্ত বাড়িতে অভিযান চালিয়ে শিলা খাতুনকে গ্রেফতার করে। পুলিশ আসার পূর্বে শিলা খাতুনের ভাড়া করা সন্ত্রাসী পালিয়ে যাওয়ায় তাদেরকে গ্রেফতার করতে পারেনি

যশোরে প্রতিবেশীদের হামলায় একই পরিবারের তিনজন রক্তাক্ত জখমের ঘটনায় মামলা

যশোর প্রতিনিধি : জায়গা জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এক ভ্যানচালকে গতিরোধ করে মারপিট করায় ঠেকাতে এলে স্ত্রী ও শ্যালকের স্ত্রী মারপিটের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় পাঁচ সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাটি যশোর সদর উপজেলার রহেলাপুর মাঠপাড়া গ্রামে। আসামীরা হচ্ছে, ওই গ্রামের জাফর আলীর ছেলে চঞ্চল হোসেন,মৃত বাহাদুর বিশ^াসের ছেলে আব্দুল গনি,আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে মনির হোসেন, মৃত হাবিবার সরদারের ছেলে গোলাম মোস্তফা ও আব্দুল খালেকের ছেলে বাদলসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন।সদর উপজেলার রহেলাপুর মাঠপাড়া গ্রামের মৃত রোস্তম শিকদারের ছেলে শহিদুল ইসলম বাদি হয়ে শনিবার রাতে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। তিনি মামলায় উল্লেখ করেন, আসামীদের সাথে তার শ্যালক আব্দুল আজিজ মোল্যার ছেলে সোহরাব হোসেন (৪০) এর জমি জায়গা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। গত ১১ সেপ্টেম্বও বিকলে ৪ টায় সোহরাব হোসেন তার ভ্যানগাড়ীতে রহেলাপুর মাঠপাড়ার নওশাদ এর খড়ি নিচ্ছিল। সোহরাব হোসেন খড়ি নিয়ে আসামীদের বাড়ির সামনে পৌছালে ভ্যানগাড়ির গতিরোধ করে গালিগালাজ শুরু করে। সোহরাব হোসেন প্রতিবাদ জানালে তাকে মারপিট ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এসময় সোহরাব হোসেনের স্ত্রী মাজেদা বেগম (৩২) ও বোন বাদীর স্ত্রী ফুলমতি (৪৫) ঠেকাতে গেলে তাদেরকে মারপিট পূর্বক রক্তাক্ত জখমসহ শ্লীলতাহানী ঘটায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তিনজনকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়

যশোরে ইয়াবা ও গাঁজাসহ এক যুবককে আটক দেখিয়েছে মাদকদ্রব্য বিভাগ

যশোর প্রতিনিধি : মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয় ক সার্কেলের সদস্যরা দেড়শ পিস ইয়াবা ও ১শ’ গ্রাম গাঁজাসহ আরমান গাজী ওরফে শেখরকে গ্রেফতার দেখিয়ে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দিয়েছে। সে যশোর শহরের পুরাতন কসবা কাজীপাড়া গোলামপট্টি বাড়ি নং ২৬ এর মৃত রবিউল গাজীর ছেলে।মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর জেলা কার্যালয় ক সার্কেলে কর্মরত উপ পরিদর্শক এসএম শাহীন পারভেজ জানান,শনিবার দুপুর ১২ টায় গোপন সূত্রে খবর পেয়ে আরমানগাজী ওরফে শেখরের বাড়িতে অভিযান চালায়। এসময় শেখরকে গ্রেফতার পূর্বক তার দখলে থাকা উক্ত মাদকদ্রব্য উদ্ধার করে #

রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল আধুনিকীকরণও বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবি

যশোর প্রতিনিধি : রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল আধুনিকীকরণ ও পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে যশোরে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে বামদলগুলো। শহরের মুজিব সড়কে এই মানববন্ধন ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশের কর্মসূচি পালন করা হয়। সমাবেশে বক্তৃতাকালে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ইকবাল কবির জাহিদ বলেন, পাট চাষ করে কৃষকরা একসময় লাভবান হতো। কিন্তু সরকারের সিদ্ধান্তের কারণে আজ পাট ও পাটশিল্প ধ্বংসের মুখে। এ অবস্থায় পাটশিল্প পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে নিতে প্রতিমণ পাটের সর্বনিম্ন মূল্য ৩ হাজার টাকা নির্ধারণ, পাটশিল্প বিরাষ্ট্রীয়করণের সিদ্ধান্ত বাতিল, রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল আধুনিকীকরণ ও শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধ করা জরুরি।এ অবস্থায় কৃষক ও কৃষির সমস্যাকে জাতীয় সমস্যা বিবেচনা করে অবিলম্বে কার্যকরি উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান নেতৃবৃন্দ।সমাবেশে বাংলাদেশের ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সমন্বয়ক তসলিমুর রহমান, সিপিবি সভাপতি অ্যাড. আবুল হোসেনসহ বাসদ, বাসদ (মার্কসবাদী) দলের নেতারা বক্তৃতা করেন #

কারিগর যত উন্নত হবে, প্রোডাক্ট তত ভালো হবে– যবিপ্রবি উপাচার্য

যশোর প্রতিনিধি : যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেছেন, শিক্ষকেরা হলেন মানুষ গড়ার কারিগর। এই কারিগররা যত উন্নত হবে, তাঁরা তত ভাল্প্রোোডাক্ট বানাতে পারবে। অর্থাৎ দেশের জন্য তাঁরা দক্ষ ও মানসম্মত নাগরিক তৈরি করতে পারবে।১৩ সেপ্টেম্বর রোববার সকালে যবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের গ্যালারিতে অনলাইন ক্লাসের জন্য ‘অনলাইন লার্নিং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন এসব কথা বলেন।অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকতা এবং অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকতার মধ্যে কিছু মৌলিক পার্থক্য রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের হতে হয় মুক্ত মনা। এই মুক্ত মন নিয়ে তারা দেশের জন্য কিছু মুক্তমনা মানুষ তৈরি করেন। যবিপ্রবির শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আসুন আমরা এমন একটি বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করি, যেখানে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ-চিন্তা-চেতনার লালন করা হয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণের জন্য দিনরাত যে নিরলস পরিশ্রম করছেন, যেন তার প্রতিফলন হয়। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমন গ্রাজুয়েট তৈরি করতে হবে- যারা চাকরি চাইবে না, মানুষকে চাকরি দেবে। অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, অনলাইনে খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যে দ্বিতীয় সেমিস্টারের ক্লাসও শুরু করা হবে। এ জন্য প্রথমে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে, যেন তাঁরা যথাযথভাবে এ পদ্ধতির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বিষয়টি বুঝাতে পারে। তিনি বলেন, কোনো শিক্ষার্থী যেন একাডেমিক কার্যক্রম থেকে বাদ না পড়ে এ জন্য অন্তভুর্িক্তমূলক শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করা হবে। সব শিক্ষার্থী যেন একাডেমিক কার্যক্রমের মধ্যে থাকে, সে জন্য করোনা পরিস্থিতির পর শ্রেণিকক্ষের বাইরে অনলাইনেও ক্লাস কার্যক্রম চলবে।যবিপ্রবির কম্পিউটার প্রকৌশল ও প্রযুক্তি (সিএসই) বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সৈয়দ মোঃ গালিবের পরিচালনায় প্রশিক্ষণ কর্মশালায় কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. আব্দুল্লাহ আল মামুন, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন ড. মোঃ মেহেদী হাসান, সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আসিফ নাসিরী ও ড. মোঃ আলম হোসেন বিশেষজ্ঞ কমিটির সদস্য হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া যবিপ্রবির ২৬টি বিভাগের অর্ধশতাধিকের বেশি শিক্ষক এই প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশ নেন। এডুকেশন টেকনোলজি অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার (ইটিআরসি) দুজন বিশেষজ্ঞ অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার পদ্ধতি সম্পর্কে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেন

Comments

comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ