আশাশুনি থেকে ৫ চোরাই গরুসহ গ্রেপ্তার-২

আশাশুনি প্রতিনিধি : আশাশুনি থেকে চুরি যাওয়া ৫ গরুসহ চুরির সাথে জড়িত দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, তালা উপজেলার খলিলনগর ইউনিয়নের উত্তর নলতা গ্রামের মোকছেদ সরদারের পুত্র সিরাজুল ইসলাম ও আশাশুনির গদাইপুর গ্রামের কবিরুল মল্লিকের স্ত্রী মুক্তি বেগম।
থানা ও গরু মালিকদের সূত্রে জানাগেছে, উপজলার গদাইপুর গ্রামের তবিবুর রহমান হিটলার ও ইউছুপ মোল্যার বাড়ি থেকে গত বুধবার ৫টি গরু চুরি হয়। একই গ্রামের ইন্তাজ মোল্যার পুত্র আব্দুল মজিদ ও কবিরুল মল্লিক গরুগুলো চুরি করে উত্তর নলতা গ্রামের সিরাজুল ইসলামের কাছে বিক্রি করেন বলে জানা গেছে। এ খবরে পুলিশ কবিরুল মল্লিককে বাড়েিত না পেয়ে তার স্ত্রী মুক্তি বেগমকে আটক করে থানা হেফাজতে নেয়। গরুর মালিকরা খুঁজতে খুঁজতে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার আঠারমাইল বাজার গিয়ে তাদের একটি গরু দেখতে পান। সাথে সাথে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপারকে বিষয়টি ফোনে অবহিত করলে তালা উপজেলার জাতপুর ক্যাম্পে সংবাদ পাঠানো হয়। জাতপুর ক্যাম্পের এএসআই আলাউদ্দীন ও জামিনুর রহমান আঠারমাইল বাজার থেকে তিনটি গরুসহ সিরাজুলকে আটক করেন। পরে তার দেওয়া তথ্য মোতাবেক খলিলনগর এলাকা থেকে আরও দুটি গরু উদ্ধার করে আশাশুনি থানা হেফাজতে নেয়া হয়। আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির জানান, গরু চুরির ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। চুরির সাথে জড়িত আটকৃতদের শনিবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

আশাশুনির কুন্ডুড়িয়ায় তুচ্ছ ঘটনায় দু’পক্ষের মারপিটে আহত-২

বুধহাটা (আশাশুনি) প্রতিনিধি: আশাশুনির কুন্ডুড়িয়ায় তুচ্ছ ঘটনায় দু’পক্ষের মারপিটে দু’মহিলা আহত হয়েছে আহত একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধহাটা ইউনিয়নের কুঁন্দুড়িয়া গ্রামের মৃত. গোলাপ গাজীর পুত্র আতিয়ার গাজীর লিখিত অভিযোগে জানাগেছে, তার আপন ভাইয়ের সাথে পাওনা টাকা চাওয়া নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ভাই মেম্বর মতিয়ার রহমান ও ভাইয়ের পুত্রসহ অন্যরা আতিয়ার ও আতিয়ারের স্ত্রীসহ দু’বোনকে মারপিট করে। তাদের বাড়ির রান্নার ঘরের চলা, হাড়ি-পাতিল ভাংচুর করে এবং ঘর থেকে নগদ টাকা নিয়ে নেয়। মেম্বর মতিয়ার গংরা এনিয়ে থানা পুলিশ না করার জন্য হুমকি দিয়ে কেটে পড়ে। মেম্বরের বোন মমতা আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এ ব্যাপারে আতিয়ার বাদী হয়ে মতিয়ার রহমান, রুবিনা, রমজান, রনি, লোকমানসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। ইউপি সদস্য মতিয়ার রহমানের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আমার বড় ভাইয়ের মেয়ে আমার বাড়ীতে আমার মেয়ের ন্যায় লেখাপড়া করে ও অবস্থান করে। তার সকল খরচাদি প্রায় আমিই বিহার করে থাকি। এরই মধ্যে আমার ভাই আতিয়ার রহমান তার শেষ পক্ষের স্ত্রী বিভিন্ন সময় তাকে বাজে বাজে প্রলোভন দেখায়। তাতে মেয়েটি রাজি না থাকা প্রায়ই সময় তার সম্পর্কে বিভিন্ন প্রকার সন্মান হানিকর ও সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্নকর মনগড়া কথা এলাকায় ছড়িয়ে বেড়াচ্ছে। এ নিয়ে আমাদের ভাই বোনদের মধ্যে একটু অর্ধেক কথাকাটা ও ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে মাত্র। কিন্তু ঈদের পরে ইউপি চেয়ারম্যান উভয় পক্ষকে নিয়ে বসাবসি করে মিমাংশা করার আশ্বাস প্রদান করেছেন। এরই মধ্যে অন্যের প্ররোরচনায় পড়ে তার অহেতুক পারিবারিক বিষয়টি ভিন্নখাতে দিতে মিথ্যা একটি অভিযোগ করেছে।

Comments

comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ