আশাশুনিতে বিধবার মাছ লুটপাট ও জবর দখলের অভিযোগ

আহসান হাবিব, আশাশুনি প্রতিনিধি : আশাশুনির শোভনালীতে এক অসহায় বিধবার মৎস্য ঘরের নেট পাটা ছিড়ে ছুটে মাছ লুটপাট ও জবর দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার শোভনালী ইউনিয়নের বাটরা গ্রামের মৃত. জোহর আলী গাজীর স্ত্রী অসহায় বিধবা জরিনা খাতুন বাদী হয়ে আশাশুনি থানায় লিখিত অভিযোগে জানাগেছে, স্বামীর মৃত্যুর পর বাটরা মৌজার পৈত্রিক ৪ শতক ও ডিডকৃত ১১ শতক, মোট ১৫ শতক জমিতে দীর্ঘদিন তার পরিবার মৎস্য চাষ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। এরই মধ্যে একই এলাকার মৃত. গফ্ফার সানার পুত্র শহিদুল ইসলাম ভুট্ট, আমেনা খাতুন ও ইউসুফ গাজী গংরা ঘের জবর দখলের পায়তারা করলে জরিনা খাতুন বাদী হয়ে গত ৪ জুন আশাশুনি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করে। এ ব্যাপারে এএসআই মোকাদ্দেস হোসেন সাধারণ ডায়েরীটি প্রসেসিং করে অপরাধ তদন্তের অনুমতি চেয়ে আমলী আদালত, আশাশুনির সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট বরাবর আবেদন করলে আদালত তদন্তের জন্য মঞ্জুর করেছেন বলে জানাগেছে। ডায়েরীর ঘটনা জানতে পেরে প্রতিপক্ষ ভুট্ট গংরা ফুসে উঠে সংঘবদ্ধ হয়ে ২০ জুলাই সকাল ১১ টার দিকে দেশীয় অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বিধবা জরিনা খাতুনের ঘেরে অনধিকার প্রবেশ করে নেট পাটা ছিড়ে-ছুটে মাছ লুটপাট করে। জরিনা খাতুন জানতে পেরে মৌখিকভাবে প্রতিবাদ করলে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে ভুট্ট গংরা জরিনা খাতুনকে বেধড়ক মারপিট করে আহত করে এবং বেআব্রুম করে শ্লীতাহানির চেষ্ট করে। এ সময় জরিনার ডাকচিৎকারে পার্শ্ববর্তী লোকজন আসলে জিডি তুলে না নিলে দুনিয়া থেকে সরিয়ে দেবে বলে হুমকি ধামকি দিয়ে চলে যায়। এ ঘটনায় অসহায় বিধবা জরিনা খাতুনসহ ভূক্তভোগী পরিবারটি নিরাপত্তা হীনতায় ভূগছেন বলে প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ