কেশবপুরের উপ-নির্বাচনে নৌকা বিজয়ের অপেক্ষায়

এম. আব্দুল করিম, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি : যশোর-৬ উপনির্বাচন কাল ১৪ জুলাই, তবে এই নির্বাচন নিয়ে তেমন কোন উত্তাপ নেই। ভোট নিয়ে ভোটারদের তেমন কোন আগ্রহ নেই। নির্বাচনে তিনজন প্রার্থী প্রতিযোগিতায় নামলেও এরই মধ্যে এক জন সরে দাড়ানোর ঘোষনা দিয়েছেন। রয়েছেন মাত্র দুইজন প্রার্থী। এর মধ্যে জাতীয় পার্টির প্রার্থীকে ভোটাররা আমলে নিচ্ছে না। শুধু নৌকার প্রার্থীর একচ্ছত্র আধিপাত্ত রয়েছে ভোটারদের কাছে। যে কারনে নির্বাচনী কোন উত্তাপ ছড়াচ্ছে না মাঠে ময়দানে। এখন শুধু ফল ঘোষনা এবং সঙ্গত কারণেই নৌকা বিজয়ের অপেক্ষায় কেশবপুরের মানুষ। নিরুত্তাপ নির্বাচনে কোন শঙ্খা না থাকলেও মাঠে রয়েছেন চার স্তরের নিরাপত্তা বলয়। ৭শ ১০ জন পুলিশসহ ডিবি, এনএসআই এবং ১৮ জন ম্যাজিস্ট্রেট রয়েছে মাঠে। ভোট সম্পন্নের পরও ৪৮ ঘন্টা তারা মাঠে থাকবেন বলে জানাগেছে। রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় সুত্রে জানাগেছে, যশোর-৬ আসনের উপ নির্বাচনে ২লাখ ৩হাজার ১৮ জন ভোটার তাদের ভোটধিকার প্রয়োগের কথা। এর মধ্যে ১লাখ ২হাজার ১শ ২২ জন পুরুষ ভোটার। এবং ১লাখ ৮শ ৯৬ জন মহিলা ভোটার রয়েছে। ৭৯ টি ভোট কেন্দ্র ও ৩৭৪টি বুথ থাকবে। ৭৯টি কেন্দ্রে ৭৯জন প্রিজাইডিং অফিসার ও প্রতি কক্ষে ১জন সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার ও ২জন করে পোলিং অফিসার রয়েছে। সুত্রে জানাগেছে,
১৪জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে নির্বাচন উপলক্ষে নিয়োগ করা হয়েছে। ৭ জুলাই থেকে তারা দায়িত্ব পালন করছেন। রিটার্নিং অফিসার হুমায়ুন কবির বলেন, নির্বাচনে আইনশৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ১৮ জন ম্যাজিস্ট্রেট কাজ শুর করেছে। তাদের মধ্যে ১৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট ২ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও দুই জন ম্যচিস্ট্রেট বিভিন্ন অভিযোগ তদন্ত কাজ করবেন। ৭ জুলাই থেকে আইনশৃংখলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করছে তারা। এবং ১৬ জুলাই পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় তারা দায়িত্ব পালন করবেন।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ