বিরলে কম্প্যাশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ কর্তৃক পিপিই

আতিউর রহমান, বিরল (দিনাজপুর) : বিরলে কম্প্যাশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ করোনা ভাইরাস প্রাদর্ভাবের বিরুদ্ধে লড়াই করতে ব্যক্তিগত সুরক্ষামূলক সরঞ্জাম (পিপিই) উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট হস্তান্তর করেছে। বাংলাদেশের কোভিড-১৯ প্রতিক্রিয়া প্রচেষ্টায় সহায়তার অংশ হিসাবে সংস্থাটি গুণগত মানসম্পন্ন প্রয়োজনীয় ব্যক্তিগত প্রতিরক্ষামূলক সরঞ্জাম (পিপিই) হস্তান্তর করেছে। যা নোভেল করোনাভাইরাসের বিস্তাররোধে ও প্রস্তুতিতে সহায়তা করবে। বিরল উপজেলার বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে বৃহষ্পতিবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার জিনাত রহমানের নিকট উত্তরবঙ্গ শিশু উন্নয়ন প্রকল্প’র কর্মকর্তাবৃন্দ এসব সামগ্রী হস্তান্তর করে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে তাঁর পক্ষে পিপিই গ্রহণ করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার জাবের মোঃ সোয়াইব। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ এ এস এম ইকরাম, উপজেলা স্বাস্থ্য প্রশাসনের করোনা ফোকাল পার্সন ডাঃ মোঃ সামিউল ইসলাম সবুজ। পিপিইসমূহ প্রদান করেন উত্তরবঙ্গ শিশু উন্নয়ন প্রকল্পর প্রকল্প ব্যাবস্থাপকগণঃ মি. যোসেফ বর্মন, মি. রবীন্দ্রনাথ রায়. মি. সুভাষ রায় ও মি. বাসুদেব বিশ্বাস।
ব্যক্তিগত প্রতিরক্ষামূলক সরঞ্জাম (পিপিই)’র মধ্যে ১৫ টি মেডিকেল গাউন, ১৫ টি সার্জিক্যাল মাস্ক, ১৫ প্যাকেট সার্জিক্যাল গøাভস, ১৫ জোড়া সু কভার ও ইউএনও অফিসের জন্য ৫ টি স্মারকচিহ্ন।
এ সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বলেন, বৈশ্বিক মহামারীর সময় সরকারের সঙ্গে যুক্ত থেকে কম্প্যাশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ এভাবে সহায়তা করার জন্য ধন্যবাদ জানাই। করোনা ভাইরাস রোধে বাংলাদেশ সরকারের সামগ্রিক উদ্যোগের একটি ক্ষুদ্র অংশ হিসাবে অবদান রাখতে কম্প্যাশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের ৬০ টি উপজেলায় ৯০০ সেট পিপিই প্রদান করবে। স্থানীয় সরকারের সহায়তাকল্পে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে উপজেলা পর্যায়ের সরকারি হাসপাতালগুলোতে পিপিইসমূহ প্রদান করা হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এই পিপিইগুলো সম্মূখসারির স্বাস্থ্য সেবা কর্মীদের মধ্যে বরাদ্দ ও বিতরণ করবেন যারা কোভিড-১৯ এর প্রভাব থেকে স্থানীয় জনগণকে রক্ষা করতে প্রথম প্রতিক্রিয়া করে থাকেন।
উত্তরবঙ্গ শিশু উন্নয়ন প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক যোসেফ বর্মন বলেন, আমরা এভাব আমাদের সহযোগিতা অব্যাহত রাখবো। কম্প্যাশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ দেশজুড়ে অপুষ্টি হ্রাস, শিশু সুরক্ষা এবং যুব উন্নয়ন কর্মকান্ডের উন্নতি সাধনে তাঁদের উদ্যোগের মাধ্যমে স্থানীয় সরকারের সাথে নিবিড়ভাবে কাজ চালিয়ে যাবে। কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবের এই পরিস্থিতিতে, এর নিয়ন্ত্রন্ত্রণে বাংলাদেশ সরকারের চলমান প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে সহায়তা করতে দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ কম্প্যাশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ। একইসাথে এই আইএনজিও ফিল্ড অফিসের মাধ্যমে অনেক সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন ও বাস্তবায়ন করছে এবং এই অনিশ্চিত সময়ে তাঁদের প্রকল্পের মাধ্যমে স্থানীয় দরিদ্র নিবন্ধিত শিশুদের ও পরিবারগুলোকে ত্রাণ সরবরাহ করছে। কম্প্যাশন ইন্টারন্যাশনাল বাংরাদেশ শিশুদের সার্বিক উন্নয়নের জন্য কাজ করে থাকে। যে সকল শিশু ও তাদের পরিবার চরম দারিদ্র, নিরক্ষরতা, অপুষ্টি এবং বঞ্চনার সাথে লড়াই করছেন তাদের সহায়তা করে থাকেন। এই সংস্থাটির উদ্দেশ্য হল- দারিদ্রতা থেকে শিশুদের মুক্তি নিশ্চিত করা; যা শিশুদের সামাজিক, নৈতিক, শারীরিক ও অর্থনৈতিক অর্গগতির মাধ্যমে টেকসই সামগ্রীক ুœœয়ন সাধনের এবং মানবিক সহায়তা প্রদানের মাধ্যমে করা সম্ভব। কম্প্যাশন ইন্টারন্যঅশনাল ২০০৪ সাল থেকে পার্টনারশিপের (অংশিদারিত্বের) মাধ্যমে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে এই সংস্থাটির সারাদেশে প্রায় ৩৮,৩৩২ জন নিবন্ধিত শিশু রয়েছে এবং বাংলাদেশের ৩৮ টি জেলায় ১৭৪ টি প্রকল্প রয়েছে।

Comments

comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ