মৎস্য সম্পদ রক্ষায় সুন্দরবনে দুই মাস মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা

বাগেরহাট প্রতিনিধি : মৎস্যসম্পদ রক্ষায় সুন্দরবনে দুই মাসের জন্য মাছ ধরায় নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে বন বিভাগ। এ দুই মাস মৎস্য প্রজাতির প্রজনন মৌসুম। তাই এই দুই মাসে কোনো মৎস্যজীবীকে সুন্দরবনে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।
বন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব সুন্দরবনের মধ্যে অভয়ারণ্য এলাকার ১৮টি এবং ২৫ ফুটের কম প্রসস্ত খালগুলোতে সারা বছরই মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ। তাছাড়া, জুলাই ও আগস্ট প্রজনন মৌসুমের এই দুই মাস বনের সকল খালে মৎস্য আহরণ বন্ধ রাখা হয়। জোয়ারের পানিতে সবসময় প্লাবিত হওয়া এই জলভাগে ২১০ প্রজাতির সাদা মাছ ও ২৪ প্রজাতির চিংড়ি পাওয়া যায়।
বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মোহাম্মাদ বেলায়েত হোসেন বলেন, সুন্দরবনে মৎস্য সম্পদ রক্ষায় ইন্টিগ্রেটেড রিসোর্সেস ম্যানেজমেন্ট প্ল্যানস এর (আইআরএমপি) সুপারিশ অনুযায়ী ২০১৯ সালে সুন্দরবন বন বিভাগ একটি চুক্তিতে আবদ্ধ হয়েছে। সুন্দরবনের (পূর্ব ও পশ্চিম) সব নদী ও খালে মাছ আহরণ বন্ধ থাকবে। এই দুই মাস সুন্দরবনের নদী খালে থাকা বেশির ভাগ মাছের প্রজনন মৌসুম। যার ফলে এ সময় মাছ ধরা বন্ধ থাকলে সুন্দরবনের নদী খালে যেমন মাছ বৃদ্ধি পাবে, তেমনি অন্যান্য প্রাণি, উদ্ভিদসহ সব জীবের ক্ষেত্রে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। এ সময়ে চোরা শিকারিরা যাতে মৎস্য শিকার করতে না পারে সে জন্য বনে টহল জোরদার করা হয়েছে।

Comments

comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ