৪৬ বছর পর দুর্গম থানচি উপজেলায় বিদ্যুতের আলো

প্রকাশিত: ০২-০৩-২০১৭, সময়: ১২:৫৪ |
Share This

স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৬ বছর পর বান্দরবানের দুর্গম থানচি উপজেলায় পৌঁছেছে বিদ্যুতের আলো। সুবিধা বঞ্চিত মানুষের সুবিধার্থে ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়ন করা হয়েছে “থানচি বিদ্যুতায়ন প্রকল্প”। খুলে যাচ্ছে পর্যটন স্পটগুলোর সম্ভাবনার দুয়ার। আমূল পরিবর্তন আসবে কৃষি, স্বাস্থ্য ও শিক্ষাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে।

থংলেং খুমী। বান্দরবান পার্বত্য জেলার থানচি উপজেলার বাসিন্দা। দীর্ঘ সাড়ে চার দশক পর বিদ্যুৎ পাল্টে দিয়েছে তার জীবন-ধারা। পাল্টে দিয়েছে ব্যবসা। জেনারেটরের মাধ্যমে আগে দিনে তিন থেকে চার ঘণ্টা ব্যবসা হতো তার। এখন বিদ্যুৎ আসায় রাত দিন ২৪ ঘণ্টা ফটোকপি মেশিন আর কম্পিউটার চালিয়ে ব্যবসা করছেন তিনি।

বিদ্যুতের কারণে আমূল পরিবর্তন আসতে শুরু করেছে শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ এখানকার মানুষের আর্থ সামাজিক অবস্থার।

বান্দরবানের ওয়াই জংশন ও থানচির বলীপাড়ায় স্থাপন করা হয়েছে দুটি বিদ্যুতের সাবস্টেশন। এখান থেকে দীঘ ৬২ কিলোমিটার সঞ্চালন লাইনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ পৌঁছে গেছে দুর্গম পাহাড়ের প্রতিটি ঘরে ঘরে।

সুবিধা বঞ্চিত পাহাড়ি এলাকার উন্নয়নের অংশ হিসেবে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড  নির্মাণ করেছে থানচি বিদ্যুতায়ন প্রকল্প। এর ফলে দুর্গম প্রত্যন্ত এলাকার ৩০ হাজার মানুষের জীবন আলোকিত হতে শুরু করেছে বিদ্যুতের আলোয়।

Leave a comment

উপরে