কলাপাড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের উপর হামলা, পুলিশ সহ আহত-১০

এস এম আলমগীর হোসেন, কলাপাড়া প্রতিনিধি : কলাপাড়ায় ইউএনও’র নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালতের উপর হামলায় পুলিশ সহ অন্তত: ১০ জন আহত হয়েছে। সোমবার সকালে রামনাবাদ নদীর পশ্চিম পাড়ে লালুয়া ইউনিয়নস্থ পশরবুনিয়া স্লুইজগেট এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ ও কোষ্টগার্ড সদস্যরা হামলার ঘটনার সাথে জড়িত লিটন গাজী (৩৩) ও রানা সরদার (৩৫) নামের দু’জনকে আটক করে। পরে এদের দু’জনকে নিয়মিত মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।এদিকে সোমবার দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো: জাফর বাদী হয়ে লিটন গাজী, রানা সরদার, কেরামত আলী খান, নিজাম সহ অজ্ঞাত ২০/২৫জনকে আসামী করে ভ্রাম্যমান আদালতের ওপর হামলা, সরকারী কাজে বাঁধাদান ও ক্ষতি সাধনের অভিযোগে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকালে উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের পশরবুনিয়া গ্রামের বালুমহলে সরকারী অনুমোদন ছাড়া বালু কাটার অভিযোগে ড্রেজার শ্রমিক জহিরুল ইসলাম, হাবিব, বশির আহম্মেদ. জহিরুল ইসলাম-২, মাসুদ রানা, মিরাজ, ওমর ফারুক ও হিরন হাওলাদারকে আটক করে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও ইউএনও আবু হাসনাত মোহম্মদ শহিদুল হক’র ভ্রাম্যমান আদালত।
পরে তাদের প্রত্যেককে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে ভ্রাম্যমান আদালত। এরপর দন্ডপ্রাপ্ত ড্রেজার শ্রমিকদের পুলিশের সহায়তায় স্পীডবোটে ওঠানো হয়। উক্ত আটকের সংবাদ পেয়ে ড্রেজার মালিক লিটন গাজী ও রানা সরদার সহ আজ্ঞাত পরিচয়ের ২০/২৫ জন ভ্রাম্যমান আদালতের সাজাপ্রাপ্ত আসামীদের ছিনিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্যে ও সরকারী কাজে বাঁধা প্রদানের লক্ষে পশরবুনিয়া স্লুইজগেট থেকে স্পীডবোটের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট আবু হাসনাত মোহম্মদ শহিদুল হক সহ অন্তত: ১০ জন আহত হয়।এদের মধ্যে ৬ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে।এরা হলো কলাপাড়া থানার সহকারী পুলিশ উপ-পরিদর্শক মো. জামান হোসেন, পুলিশ কনেষ্টেবল হায়দার আলী, উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার গাড়ী চালক মো. আফজাল হোসেন, স্পীডবোড চালক সাগর, তহশিলদার আবদুল জব্বার ও রফিকুল ইসলাম ।
ইউএনও আবু হাসনাত মোহম্মদ শহিদুল হক জানান, বালুমহল এলাকায় একই স্থানে ৮টি বাল্কহেড রেখে সরকারী বালুমহল থেকে বালু কেটে নিচ্ছিল । ৮টি বাল্কহেডে অন্তত: অর্ধশতাধিক শ্রমিক ছিল । বাল্কহেডের মালিক কে জানতে চাইলে শ্রমিকরা পাঁচটি বাল্কহেড’র মালিক কলাপাড়া উপজেলার টিয়াখালী
ইউনিয়নের লিটন গাজী বলে জানায়। তাকে শ্রমিকরা খবর দিলে সে সহ অজ্ঞাত ২০/২৫ জন ভ্রাম্যমান আদালতে আটককৃত ৮ জন শ্রমিকদের ছিনিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্যে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী টিমের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এসময় পুলিশ ও কোষ্টগার্ডের সহায়তায় লিটন গাজী ও রানা সরদারকে আটক করা হয়।কলাপাড়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ভ্রাম্যমান আদালতের ওপর হামলার ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসআই সম্বিতকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নিযুক্ত করা হয়েছে। মামলার অপর আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ