পার্বতীপুরে সমাজসেবা অধিদপ্তরের উদ্যোগে রোগীদের মাঝে চেক হস্তান্তর

(রুকুনুজ্জামান বাবুল: পার্বতীপুর,দিনাজপুর প্রতিনিধি) : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে সমাজসেবা অধিদপ্তরের উদ্যোগে ক্যান্সার, কিডনী ও লিভার জনিত ৬ রোগাক্রান্তের চিকিৎসা সহায়তা বাবদ প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে এককালীন অনুদানের অর্থ প্রদান করা হয়েছে।
গতকাল রোববার বেলা ১২টায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কার্যালয়ে এসময় অসুস্থ্য ৬ রোগীর হাতে ৫০হাজার টাকার বিপরীতে চেক তুলে দেন উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজুল ইসলাম প্রামানিক। অনুদান প্রাপ্তরা হলেন পার্বতীপুর পৌরসভার দৌলতপুর মহল্লার মনোয়ারা বেগম, খয়েরপুকুর হাটের উত্তর বিঞ্চুপুর ডাংগাপাড়া গ্রামের আরজিনা বানু, দলাইকোটার চমক চন্দ্র, তেরআনিয়া গ্রামের হেমন্ত কুমার সরকার, বড়পুকুরিয়া এলাকার জবরপুর গ্রামের সাগর মাহমুদ এবং মধ্যপাড়া এলাকার নারগিজ বেগম। এসময় উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা তাপস রায়সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পার্বতীপুরে পরিবেশ দুষন চরমে : এডিস মশার আশংকা

(রুকুনুজ্জামান বাবুল: পার্বতীপুর,দিনাজপুর প্রতিনিধি) : ড্রেনগুলো পরিস্কার না করায় দুর্গন্ধে পরিবেশ দুষন চরমে এলাকাবাসীর অভিযোগ।পার্বতীপুরে মাছ,মাংস,কাঁচা বাজার ও বুড়ার হাট শহিদ ময়দানে স্থানান্তর করায় মানুষ নির্বিঘ্নে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে বাজার করতে পারছেন বটে। কিন্তু গরু,ছাগল,মাছ,হাস মুরগীর বিষ্টা ও আবর্জনায় ভরাট হয়ে গেছে মাঠের দুই পাশের ড্রেন।
এলাকাবাসীর অভিযোগ ড্রেনগুলো পরিস্কার না করায় দুর্গন্ধে এলাকায় বসবাস করা দায় হয়ে পড়েছে। তাছাড়া দীর্ঘদিন ময়লা পানি জমে থাকায় এডিস মশার আশংকাও করছেন তারা।এবিষয়ে জানতে চাইলে পৌর মেয়র এ জেড এম মেনহাজুল হক বলেন বিষয়টি আমি অবগত হলাম। শীঘ্র প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানান তিনি।

ফুলবাড়ীতে বোরো ধানের বাম্পার ফলন : শ্রমিক সংকট ও আর্থিক ক্ষতির আতঙ্কে কৃষক

(রুকুনুজ্জামান বাবুল: পার্বতীপুর,দিনাজপুর প্রতিনিধি) : দিনাজপুরের ফুলবাড়ীসহ আশপাশের এলাকায় বোরো ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা । বোরো ক্ষেতে ধান পাকতে শুরু করলেও করোনার প্রভাবে শ্রমিক সংকটের কারণে এখানকার চাষিরা ক্ষেত থেকে ধান ঘরে তুলতে পারবেন কি-না তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন। বর্ষা মৌসুমও আসন্য ফলে দ্রুত ধান কাটা না হলে বিপুল পরিমাণ ধান ক্ষেতেই নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা করছেন কৃষকরা। উপজেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে,চলতি বছর ১৪হাজার ২০০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে এবার ১৪হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছে। এ উপজেলায় চাষাবাদের জমি রয়েছে প্রায় সাড়ে ১৮ হাজার ৯২৯ হেক্টর। এর মধ্যে ১৪ হাজার ৩০০হেক্টর জমিতে এবার বোরো ধান চাষ হয়েছে।এদিকে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবার বোরো ধানের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখা গেলেও কৃষকের মুখে হাসি নেই। কারণ ধান পাকতে শুরু করলেও শ্রমিক সংকটের কারণে এই এলাকার কৃষকরা ক্ষেত থেকে ধান ঘরে তুলতে পারবেন কি-না তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। বর্ষা মৌসুম আসন্ন তাই দ্রুত ধান কাটা না হলে ক্ষতিতে পড়ার আশঙ্কায় ঘুম নেই কৃষকের।উপজেলার বেতদিঘী ইউনিয়নের চিন্তামন এলাকার কৃষক মোঃ এজার উদ্দিন জানান, এবার তিনি প্রায় ১০ একর জমিতে বোরো ধানের চাষ করেছেন। এই মুহূর্তে মাঠে ধানের অবস্থা দেখে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনাও দেখছেন তিনি। তবে করোনা ভাইরাসের বিস্তৃতির কারণে ধান কাটার শ্রমিক পাওয়া না গেলে ব্যাপক ক্ষতিতে পড়ার চিন্তায় রয়েছেন তার মত অনেক কৃষক। ১০/১২ দিনের মধ্যে পাকা ধান কাটা ও মাড়াইয়ে বিলম্ব হলে বৃষ্টি ও কালবৈশাখীতে ফসল নষ্ট হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে বলেও জানান তিনি। কৃষক সামিউল আলম জানান, বিগত বছরগুলোতে এসময় রংপুর,কুঁড়িগ্রাম,লালমনিরহাট,গাইবান্ধাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে ধান কাটতে ৬ থেকে ৭ হাজার শ্রমিক ফুলবাড়ীতে আসতেন। এবার করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে গণ-পরিবহন বন্ধ থাকায় শ্রমিক আসতে পারছেন না। তাই বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা থাকলেও শ্রমিক সংকটের কারনে বিভিন্ন এলাকায় কৃষকরা উৎকন্ঠায় রয়েছেন।উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এটিএম হামিম আশরাফ বলেন,করোনার কারণে সরকার ও কৃষি বিভাগ থেকে নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ধান কাটার জন্য সরকারী-বেসরকারী উদ্যেগে ৪টি হার্বেস্টার মেশিন প্রস্তুত করা হয়েছে। আগামী ৬ মে বুধবার উপজেলার লক্ষীপুর ও খয়েরবাড়ী এলাকায় ডাঃ আনোয়ার এর তৈরী দুটি হার্ভেষ্টার মেশিনের মাধ্যমে বোরো ধান কাঁটার উদ্বোধন করা হবে।কৃষি কর্মকর্তা আরও জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী সরকারি ব্যবস্থাপনায় ধান কাটতে ইচ্ছুক শ্রমিকরা তাদের নিজেদের উপজেলা কৃষি অফিসের মাধ্যমে প্রত্যয়নপত্র নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় ধান কাটার কাজে আসতে পারছেন। এসব শ্রমিকদের করোনা ঝুঁকি এড়িয়ে থাকার জন্য বন্ধ স্কুলগুলো ব্যবহার করতে স্ব-স্ব চেয়ারম্যানদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে তদারকির জন্য কৃষি কর্মকর্তা,পুলিশ বাহিনীর সদস্য, চেয়ারম্যান ও ইউপি সচিবদের সরকারীভাবে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে কৃষকের চাহিদানুযায়ী শ্রমিক পাওয়া যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ