কেশবপুর প্রসক্লাব পর কাউন্সিলরদর সংবাদ সম্মলন

প্রকাশিত: ০৭-০৯-২০২১, সময়: ১২:১৫ |
Share This

এম. আব্দুল করিম, কেশবপুর থেকে: যশোরের  কেশবপুর পরসভার ময়রর বিরুদ্ধ অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযাগ এন সরকারর বিভিন দপ্তর দয়া অভিযাগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন দাবি কর কশবপুর প্রসক্লাব সংবাদ সম্মলন করছন পরসভার কাউন্সিলরবদ। মঙ্গলবার সকাল পরসভার প্যানল ময়র মনায়ার হাসন মিটু স্বাক্ষরিত লিখিত বক্তব্য পাঠ করন পর কাউন্সিলর ও উপজলা যুবলীগর আহবায়ক বিশ্বাস শহিদুজামান শহিদ।
লিখিত বক্তব্য তিনি বলন, বাংলাদশ ছাত্রলীগ, কশবপুর উপজলা শাখার বহি¯ত সাবক যুগ্ম আহবায়ক খদকার আব্দুল আজিজ পরসভার ময়র রফিকুল ইসলামর বিরুদ্ধ কাটশন কর টাকা উত্তালন, করানাকালিন বরাদ্দ সঠিকভাব বটন না করা, হাটবাজারসহ অন্যান্য খাতর টাকা অনিয়ম, আর্থিক সাহায্য প্রদানর নাম আতসাত, এলজিএসপি-৩ প্রকল্পর ঠিকাদার নিয়াগ অনিয়ম, ডিজিটাল ¯ীন ¯াপণ অনিয়ম, কিশার গ্যাং লালন পালন, ময়রর ঢাকা গমন, পরসভায় জনবল নিয়াগ ও টিআর প্রকল্প অনিয়মসহ ১১টি অভিযাগ এন সরকারর বিভিন দপ্তর প্ররণ করছন। এ বিষয় গত ৬ সপ্টম্বর পরসভার মাসিক সভায় পুখানুপুখভাব যাচাই বাছাই কর দখা গছ তিনি য অভিযাগ করছন তা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।
লিখিত বক্তব্য তিনি দাবি করন, পিপিআর ২০০৬ ও ২০০৮ এর তফশীল-২ এর ৬৯ (১) এবং ৬ এর ক ও গ অনুযায়ী ময়রক কাটশন করার ক্ষমতা দয়া হয়ছ। তারপরও তিনি নিয়মিতভাব মাসিক মিটিং করন এবং মিটিং এর সিদ্ধাÍ অনুযায়ী কাটশনসহ অন্যান্য যাবতীয় উনয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা কর থাকন। তিনি আরও বলন, এলজিএসপি-৩ প্রকল্পর নিয়মানুযায়ী প্রকল্পর কাজ বাস্তবায়নর ক্ষত্র ইজিপি পদ্ধতিত দরপত্র আহবান করা হয়। সিপিটিইউ কদ্রীয়ভাব লটারীর মাধ্যম ঠিকাদার নিয়াগ করন। এখান ময়র বা কাউন্সিলরদর ঠিকাদার নিয়াগর কান সুযাগ নই। ময়র রফিকুল ইসলামর দায়িত্বকাল পরসভায় কান ¯ায়ী জনবল নিয়াগ দয়া হয়নি। এছাড়া ¯ানীয় সংসদ সদস্যর বরাদ্দকত টিআর পরসভায় দয়া হয় না। তব উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপজলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার মাধ্যম পর এলাকায় ১২টি টিআর প্রকল্প গ্রহণ করন। যার উনয়ন কাজ এখনও চলমান রয়ছ। যা তদারকি করন উপজলা প্রশাসন ও উপজলাা প্রকল্প বাস্তবায়ন দপ্তর। এ প্রকল্পর সাথ ময়রর কান সংশ্লিষ্টতা নই। য কারণ বিভিন দপ্তর দয়া অভিযাগর কান সত্যতা নই।
এ ব্যাপার জানত চাইল ময়র রফিকুল ইসলাম বলন, আমার দায়িত্বকালর মধ্য মাসিক মিটিং এর সিদ্ধাÍ অনুযায়ী সকল উনয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন কর থাকি। এত আমার কান নিজস্ব মতামত থাক না। আমার উনয়ন কর্মকান্ড ও জনপ্রিয়তায় ঈর্ষাম্বিত হয় আমার সুনাম ক্ষুন করত একটি চক্র বিভিন দপ্তর মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযাগ কর চলছ। সংবাদ সম্মলন উপ¯িত ছিলন কাউন্সিলর আতিয়ার রহমান, জিএম কবীর হাসন, আফজাল হাসন বাবু, কামাল খান, আব্দুল হালিম, খাদিজা খাতুন ও আসমা খাতুন।

ফেসবুকে আমরা

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে