বেনাপোল চেকপোস্টে ভারত ভ্রমনে পাসপোর্ট যাত্রীরা ভ্রমন কর পরিশোধে বিড়ম্বনা কাটছে

এম ওসমান : বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্টে ভোগান্তি কমাতে ভ্রমন কর অনলাইনে পরিশোধের বিধান চালু হলেও প্রচারের অভাবে তা কার্যকর হচ্ছে না। সোনালী ব্যাংকের চেকপোস্ট বুথে লাইনে দাড়িয়ে ভারত ভ্রমনে যাওয়া পাসপোর্ট যাত্রীরা এখনো ভ্রমন কর পরিশোধ করছেন। স্থলপথে যারা বিদেশ ভ্রমণে যান তাদের জন্য ভ্রমণ কর পরিশোধ করা বড় ধরণের একটা ভোগান্তি। এতদিন পর্যন্ত শুধুমাত্র নির্ধারিত সোনালী ব্যাংকগুলোতে ও স্থল বন্দরগুলোতে ট্রাভেল ট্যাক্স বা ভ্রমণ কর দেওয়া যেত। এর ফলে স্থলপথে বিদেশ ভ্রমণে যাওয়া ব্যক্তিদের চূড়ান্ত ভোগান্তি হতো। অবশেষে অনলাইনেই ভ্রমণ কর দেওয়ার সেবা চালু করল সোনালী ব্যাংক। তাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমেই দেওয়া যাবে এ কর।বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট দিয়ে প্রতিদিন গড়ে ৫ হাজার লোক যাতায়াত করেন জানিয়ে বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন ওসি খোরশেদ আলম বলেন, ভারত গমনেচ্ছুক প্রত্যেক যাত্রীকে পাঁচশত টাকার ভ্রমন কর পরিশোধ করতে হয়। দেশের যে কোন সোনালী ব্যাংকে এই টাকা জমা দেওয়া যায় তবে ৯০ ভাগ যাত্রী চেকপোস্ট ব্যুথে জমা দিয়ে রশিদ সংগ্রহ করে থাকেন। আর এ কারনেই সময় অপচয় ও হয়রানির স্বীকার হতে হয়। ‘যাত্রীরা না জানার কারনে আইনটি কার্যকর হচ্ছে না’ স্বীকার করে বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক আব্দুল জলিল বলেন, এখন থেকে ভারত গমনেচ্ছুক প্রত্যেক যাত্রী পাঁচশত টাকার ভ্রমন কর অনলাইনে পরিশোধ করতে পারেন। আমরা বিষয়টি প্রচার করছি, এটি খুব শীঘ্রই সবাই জানতে পারবেন।২৫ জানুয়ারী ২০২০ এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে অনলাইন ট্রাভেল ট্যাক্স সুবিধা চালুর ঘোষণা দিয়েছেন এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মোঃ রহমাতুল মুনিম।বিষয়টিকে সাধুবাদ জানিয়ে ভারত যাচ্ছেন এমন একজন পাসপোর্ট যাত্রী ঢাকার নবমিতা সরকার বলেন, চেকপোস্টে এসে ভ্রমন কর পরিশোধ করে রসিদ সংগ্রহ করতে সব সময় বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। অনলাইনে পরিশোধের বিধান চালু হওয়ায় আগে থেকেই ভ্রমন করের রসিদ সংগ্রহ করা যাবে। এতে চেকপোস্টে এসে সময় অপচয়, ঠেলাঠেলি ও হুড়োহুড়ির হাত থেকে অন্তত বাঁচা গেল। বৃহস্পতিবার সকালে সরেজমিন বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্টে যেয়ে দেখা যায়, ভ্রমণ কর দেওয়ার জন্য প্যাসেঞ্জার টার্মিনালের সোনালী ব্যাংক বুথে যাত্রীদের লম্বা লাইন। পুরো বিষয়টি হাতে লিখতে হয় বলে অনেক সময় এ কর জমা দিতে যাত্রীদের ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে।ঢাকার পার্থ সরকার বলেন, আগে জানতাম না তাই এখানে লাইনে দাড়িয়ে ভ্রমন কর দিলাম। তবে আগামীতে অনলাইনে কেটে নিয়ে আসবো। অন্তত ঝামেলা থাকবে না। সোনালী ব্যাংকের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ডেভিড কার্ড, ক্রেডিট কার্ড, এমেক্স কার্ড বা যে কোন ধরণের মোবাইল ওয়ালেট দিয়ে এ কর পরিশোধ করা যাবে।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Comments are closed.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ