নাসিরনগরে এক বৃদ্ধকে অপহরনের চেষ্টা

মোঃ আব্দুল হান্নান নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) : জেলার নাসিরনগর উপজেলার ধরমন্ডল ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের নীল মোহন সূত্রধর (৬০) নামের এক বৃদ্ধকে ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ চেয়ে না পেয়ে অপহরণের সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্বার করে ৩ অপহরণকারী ও অপহরণের কাজে ব্যবহৃত সি এন জি গাড়ী সহ স্থানীয় চেয়াম্যান বাহার উদ্দিন চৌধুরীর মাধ্যমে থানায় খবর দিলে থানা পুলিশ গিয়ে অপহরণকারী ও সিএনজি গাড়িটি নিয়ে আসে। ওই ঘটনায় পরদিন ১৪ জানুয়ারি অপহৃতার ছেলে ব্রজ সূত্রধর বাদী হয়ে তার পিতাকে অপহরণের দায়ে ৩ জনকে আসামী করে নাসিরনগর থানার মামলা নং ১৫ দায়ের করে। বাদী ও এলাকাবাসীর অভিযোগ ঘটনাটি অপহরণের হলেও থানা পুলিশ মামলা নিয়েছে মারামারির। অপরদিকে ৩ আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণ করলেও অপহরণের কাজে ব্যবহৃত সিএনজি গাড়িটি ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ এমন অভিযোগ বাদী ও এলাকাবাসীর। ঘটনাটি ঘটেছে ১৩ জানুয়ারি বিকাল অনুমান ৫ ঘটিকার সময়। সরেজমিন এলাকায় গিয়ে চেয়ারম্যান উদ্বারকারী লোকজন অবসর প্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রেজুয়ান উদ্দিন খাজু সহ স্থানীয় লোকদের সাথে কথা বললে তারা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ভিকটিম সহ জানায়, ঘটনার সময়ে ভিকটিম নীল মোহন সূত্রধর বাড়ী থেকে বেড় হয়ে ধরমন্ডল বাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়। এ সময় রাস্তার উপর সি এন জি নিয়ে দাড়িয়ে থাকা ধরমন্ডল গ্রামের আবু শ্যামা মিয়ার ছেলে ওয়াসিম মিয়া (২১), দৌলতপুর গ্রামের বেলাল মিয়ার ছেলে উজ্জল মিয়া (২১) ও ধরমন্ডল কোনা গ্রামের নুরুল হকের ছেলে মফিজুল (১৯) মিলে নীল মোহন কে ধরমন্ডল বাজারের পূর্বদিকে স-মিলে গাছ দেখিয়ে দেওয়ার কথা বলে সি এন জি তে তুলে দুই জনে মুখে কাপড় চেপে ধরে ৫ লক্ষ টাকা মুক্তি পন দাবী করে অপহরন করে নিয়ে যাওয়ার সময় গাড়ির ভেতরে তাকে প্রচন্ড মারপিট শুরু করে। এ সময় নীল মোহনের চিৎকারে রাস্তার উপরে থাকা সিএনজি চালক মোঃ তামিম মিয়া (২০),সাবেক মহিলা মেম্বার আমেনা বেগম, স-মিল মালিক হাবিবুর রহমান, সিরিয়াল মাস্টার মুখলেছ মিয়া, আজিজ মিয়া দৌড়ে গিয়ে সি এন জির গতি রোধ করে থাকে উদ্বার করে ৩ অপহরনকারী ও সিএনজিটি স্থানীয় চেয়াম্যান বাহার উদ্দিন চৌধুরীর জিম্মায় দেন। পরে চেয়াম্যান থানায় ফোন দিলে পুলিশ গিয়ে ৩ অপহরনকারী ও অপহরন কাজে ব্যবহৃত সি এন জি গাড়িটি থানায় নিয়ে আসে। পরে তাদেরকে পথ রোধ করে হত্যার লক্ষে গুরুতর জখম চুরি সহ হুমকির অপরাধের মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করে। বাদী ও এলাকাবাসী আরও জানায়, মামলার ৩ নং আসামী সিএনজি চালক বর্তমানে যিনি জেল হাজতে রয়েছে তার প্রকৃত নাম মফিজুল ইসলাম এবং পিতার নাম মোঃ নুরুল হক। কিন্তু মামলার এজাহারে ৩ নং আসামী তার নিরপরাদ চাচাতো ভাইকে ফাঁসাতে তার নাম ফয়সাল মিয়া ও পিতার নাম হিরণ মিয়া দিয়েছে। প্রকৃত পক্ষে ফয়সাল মিয়া ৩ নং আসামীর আপন চাচাতো ভাই বলে জানা গেছে। স্থানীয়রা জানান ৩নং আসামী প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে নিজে বাঁচতে গিয়ে তার চাচাতো ভাইকে ফাঁসানোর চেষ্ঠা করেছিল। স্থানীয় সূত্রে আরও জানা গেছে, উল্লেখিত ৩ আসামীর নামে বিভিন্ন থানা ও আদালতে একাধিক চুরি ডাকাতির মামলার রয়েছে।
এ বিষয়ে নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ সাজেদুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অপহরণ হয়নি। তাকে অপহরণের চেষ্ঠা চলছিল। অপহরণের কাজে ব্যবহৃত সিএনজি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ্ বিষয়টি আমি খোঁজ নিয়ে দেখছি।

Comments

comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Leave a Reply

Your email address will not be published.

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক ও প্রকাশক : ডাঃ আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : ইজ্ঞি: মোঃ হোসেন ভূইয়া।
বার্তা সম্পাদক : জহিরুল ইসলাম লিটন
যুগ্ন-সম্পাদক : শামীম আহম্মেদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
মোবাইলঃ ০১৭১৬-১৮৪৪১১,০১৯৪৪২৩৮৭৩৮

E-mail:dnanewsbd@gmail.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ