যশোরে পুলিশের আলাদা অভিযান এক কেজি গাঁজাসহ ৮ মাদক বিক্রেতা গ্রেফতার

প্রকাশিত: ২৬-০৪-২০২১, সময়: ১৭:২২ |
Share This

যশোর ব্যুরো: কোতয়ালি মডেল থানা,পুলিশ ফাঁড়ি ও পুলিশ ক্যাম্পের সদস্যরা আলাদা অভিযান চালিয়ে প্রায় এক কেজি গাঁজা ও ইয়াবা উদ্ধার করেছে। এসময় মাদকদ্রব্য নিজ হেফাজতে রাখার অভিযোগে ৮ জনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, যশোর শহরের পশ্চিম বারান্দীপাড়া খালদার রোড নিকোড়ি পাড়া ২ নং ওয়ার্ড এলাকার মৃত জনাব আলী বিশ^াসের ছেলে আমিরুল বিশ^াস,বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার সাতশিকা গ্রামের বর্তমানে যশোর শহরের এমএম কলেজের দক্ষিণগেট শাহীন মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া মোল্যা মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোল্যা বায়েজিদ,যশোর শহরের শংকরপুর চোপদারপাড়ার মিজানুর রহমানের ছেলে মেহেদী হাসান কার্জন, একই এলাকার আজিজুল শেখ এর ছেলে লিটন,সদর উপজেলার শেখহাটি মিয়া বাড়ির মৃত হাসেম আলীর ছেলে আব্দুল গফুর মোল্লা, খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার চাঁদখালী গ্রামের বর্তমানে যশোর সদর উপজেলার মন্ডলগাতী পুলেরহাট স্বপন এর বাড়ির ভাড়াটিয়া কামরুল সরদারের ছেলে রাসেল বাবু, যশোর সদর উপজেলার কিসমত নওয়াপাড়ার আর্মি হারুন এর বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত সামছুর আলমের ছেলে আরিচ মিয়া ও সদর উপজেলার ভাতুড়িয়া গ্রমের মৃত নূর হোসেনের ছেলে আবুল বাসার। মাদকদ্রব্যসহ গ্রেফতারের ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় আলাদা মাদক আাইনে মামলা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের রোববার ২৫ এপ্রিল আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।চাঁচড়া ফঁাঁড়ি পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, শনিবার ২৪ এপ্রিল রাত সাড়ে ১০ টায় ভাতুড়িয়া বাজার ঈদগাহ সংলগ্ন জনৈক ফিরোজের মুদী দোকানের সামনে থেকে আবুল বাসারকে ১১০ গ্রাম গাঁজাসহ,কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশের একটি টিম শনিবার ২৪ এপ্রিল রাত পৌনে ১২ টায় কিসমত নওয়াপাড়া শাহী ফর্ণিচারের সামনে আরিচ মিয়াকে ১শ’ গ্রাম গাঁজাসহ,কোতয়ালি মডেল থানার অপর একটি টিম ২৪ এপ্রিল শনিবার বিকেল ৪ টায় রেলরোড চোরমারা দিঘীর পাড়স্থ এলাকা থেকে ১২০ গ্রাম গাঁজাসহ রাসেল বাবুকে,উপশহর পুলিশ ক্যাম্পের সদস্যরা ২৪ এপ্রিল শনিবার বিকেলে শেখহাটি মিয়া বাড়ি আব্দুল গফুর মোল্লার বাড়ি হতে ২৭পিস ইয়াবাসহ,কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশ শনিবার রাত পৌনে ১২ টায় নাজির শংকরপুর ভাঙ্গাগেট এলাকা থেকে লিটন শেখকে ১শ’ গ্রাম গাঁজাসহ,কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশ একই দিবাগত রাত পৌনে ৯ টায় শংকরপুর ভাঙ্গাগেট এলাকা থেকে মেহেদী হাসান কার্জনকে ১৫০ গ্রাম গাঁজা,কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশ শনিবার বিকেলে এমএম কলেজের মেইন গেটের সামনে থেকে ১২০ গ্রাম গাঁজাসহ মোল্যা বায়েজিদকে ও সদর পুলিশ ফাঁড়ীর সদস্যরা শনিবার বিকেলে শহরের হাটখোলা রোড গ্রামীন হোটেল এন্ড রেষ্টুরেন্টের সামনে থেকে আমিরুল বিশ^াসকে ১৫০ গ্রাম গাঁজাসহ গ্রেফতার করে।

মণিরামপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ সদস্য আহত

যশোর ব্যুরো: যশোরের মণিরামপুর উপজেলার খেদাপাড়া বাজারের দক্ষিণমাথার মোড়ে কার ও মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে মনিরুজ্জামান (৩৫) নামে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। সকাল ১০টায় যশোর পুলেরহাট-রাজগঞ্জ সড়কের খেদাপাড়া বাজারের কাছে এই ঘটনাটি ঘটে। আহত মনিরুজ্জামান মাগুরা শহরের স্টেডিয়ামপাড়ার অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ পরিদর্শক বাবর আলীর ছেলে। তিনি সাতক্ষীরার তালায় ডিএসবি কর্মী হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। সকালে মনিরুজ্জামান মোটরসাইকেল চালিয়ে মাগুরা থেকে কর্মস্থলে ফিরছিলেন। খেদাপাড়া বাজারের দক্ষিণমাথায় মোড় ঘুরতে গেলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি কারের সাথে ধাক্কা লাগে। তখন ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হন তিনি।খেদাপাড়া ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই গোলাম রসুল পুলিশ সদস্য মনিরুজ্জামানের পরিচয় নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আহত পুলিশ সদস্যকে মণিরামপুর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পড়ে গিয়ে তিনি দেহের কয়েকস্থানে রক্তাক্ত জখম হয়েছেন। দুর্ঘটনাকবলিত মোটরসাইকেল ও কার ক্যাম্পের হেফাজতে আছে।

যশোরে অস্ত্র মামলায় দুই চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে চার্জশিট

যশোর ব্যুরো: যশোরে অস্ত্র মামলায় চিহ্নিত দুই চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট জমা দিয়েছে পুলিশ। অভিযুক্তরা হলেন, স্টেডিয়ামপাড়া জজ কোর্ট মসজিদ এলাকার বাসিন্দা খন্দকার মাহবুবুল হক সজল। তিনি নড়াইল জেলার নড়াগাতী উপজেলার খাশিয়াল গ্রামের মৃত খন্দকার মুজিবুর রহমানের ছেলে। অপরজন নতুন উপশহর এলাকার আব্দুল হকের ছেলে মনিরুজ্জামান বাবু ওরফে ভ্যাড়া বাবু। মামলার তদন্ত শেষে কোতোয়ালী থানার এসআই আনছারুল হক আদালতে এ চার্জশিট জমাদেন।মামলা সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ৩ মার্চ দুপুর ১ টা ৪৫ মিনিটে ওই দুই আসামি সহ আরো অজ্ঞাত ১০/১২ জন শেখহাটি এলাকায় জৈনিক আলমগীর হোসেনের গতি রোধ করে ভয়ভীতি দেখিয়ে দুই লাখ টাকা চাঁদাদাবী করে। পরে আলমগীর দৌড় দিলে বাবু তাকে অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া করে। পরে স্থানীয়রা ছুটে আসলে আসামিরা পালিয়ে যায়। এঘটনায় আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে কোতোয়ালী থানায় মামলা করেন। ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপশহর ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সাইফুল মালেক গোপনে অভিযান চালায়। পরে বিকেল ৫টা ৫০ মিনিটে জজকোর্টমোড়ের হোটেল পার্কভিউ এর সীমানার মধ্য আছে এমন সংবাদে পুলিশ অভিযান চালায়। সন্ধা ৬টায় পুলিশের অভিযানে মাহবুবুল হক সজলকে আটক করে। এসময় মনিরুজ্জামান বাবু পালিয়ে যায়। এসময় সজল অস্ত্রের বিষয় স্বীকার করে। এসময় তার কাছথেক একটি বিদেশী শর্টগান ও ছয় রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে। একই সাথে ব্যবহিত প্রাইভেটকারটি জব্দ করে আসামিদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা করে। মামলাটি তদন্ত করে আদালতে ওই দুইজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট জমা দেয় পুলিশ।

যশোর চৌঘাটায় শিক্ষক নুরুল আলমসহ চারভাই-বোন দাঙ্গা মামলা গ্রেফতার

যশোর ব্যুরো: যশোর সদরের চৌঘাটা গ্রামের শিক্ষক নুরুল আলম সহ চার ভাই-বোন কে মারামারি মামলায় আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, চৌঘাটা গ্রামের মৃত আবু বক্কার সিদ্দিকীর ছেলে শিক্ষক নুরুল আলম, নাজিমউদ্দিন, মেয়ে মর্জিনাখাতুন ও সাহিদাখাতুন। মামলার অভিযোগেজানা গেছে, আবুবক্কার সিদ্দিকীর মেয়ে রুবিয়া ইয়াসমিনের সাথে পৈত্রিক জমি নিয়ে ভাইদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসাছিল। এ নিয়ে বিরোধের জেরধরে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি রুবিয়ার ভাই-বোনেরা তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করেছিল। এ ঘটনায় করা মামলায় শিক্ষক নুরুল আলম ও তার স্ত্রী এবং ভাইকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দেয় পুলিশ। ভাই-বোনদের বিরোধ মীমংাসার কথা বলে রুবিয়াকে পিতারবাড়ি আসতে বলে তার ভাইয়েরা। রুবিয়া তার কাজের মহিলাকে সাথে নিয়ে গত ৫ এপ্রিল পিতার বাড়িবাড়ি আসেন। এরপর পরিকল্পনা অনুযায়ায়ী রুবিয়া ও তার কাজের মহিলাকে বেধে বেদম মরাপিট করে তারভাই-বোন ও ভাগ্নেরা। হামলা কারীরা রুবিয়া ইয়াসমিনের মোবাইল ফোন, টাকা ও ব্যাগ কেড়ে নেয়। এ সংবাদ জানতে পেরে রুবিয়ার ছেলে ৯৯৯ কলদিলে পুলিশের সহাায়তায় মাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভার্তি করে। এ ব্যাপারে রুবিয়ার ছেলে রেজওয়ান হাসান বাদীহয়ে ৬ জনের নাম উল্লেখ সহ অপরিচিত ৪/৫ জনকে আসামি করে কোতয়ালি থানায় মামলা করেন। এ মমালায় ওই চারআসামিকে রোববার পুলিশ আটক ও আদালতে সোপর্দ করেছে।

ফেসবুকে আমরা

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে